অবৈধ ইজিবাইক অপসারণে হাইকোর্টের লিখিত আদেশ প্রকাশ

সারাদেশের রাস্তায় বেআইনি ও অনুমোদনহীন এসিড ব্যাটারিচালিত থ্রি হুইলার ইজিবাইক অপসারণে তাৎক্ষণিক পদক্ষেপ নিতে নির্দেশ দিয়ে লিখিত আদেশ প্রকাশ করেছেন হাইকোর্ট। সম্প্রতি বিচারপতি মামনুন রহমান ও বিচারপতি খোন্দকার দিলীরুজ্জামানের স্বাক্ষরের পর এ আদেশ প্রকাশ করা হয়।

আজ মঙ্গলবার (১১ জানুয়ারি) রিটকারী আইনজীবী অ্যাডভোকেট আতিক তৌহিদুল ইসলাম বলেন, দুই পৃষ্ঠার লিখিত আদেশের অনুলিপি হাতে পেয়েছি।

এর আগে গত ১৫ ডিসেম্বর এসিড ব্যাটারিচালিত সারাদেশের অবৈধ ইজিবাইক অপসারণের নির্দেশ দেন হাইকোর্ট।
বিচারপতি মামনুন রহমান ও বিচারপতি খোন্দকার দিলীরুজ্জামানের হাইকোর্ট বেঞ্চ এই নির্দেশ দেন। আদালতে রিটের পক্ষে শুনানি করেন অ্যাডভোকেট আতিক তৌহিদুল ইসলাম। রাষ্ট্রপক্ষে ছিলেন ডেপুটি অ্যাটর্নি জেনারেল অমিত দাশগুপ্ত।

পরে আইনজীবী আতিক তৌহিদুল ইসলাম বলেন, ইজিবাইকগুলোতে অবৈধভাবে বিদ্যুৎ সংযোগ দিয়ে ব্যাটারি চার্জ দেওয়া হয়। এই ইজিবাইকগুলো পরিবেশের জন্য ক্ষতিকর। মানবদেহের জন্য ক্ষতিকর। এছাড়া ইজিবাইকগুলো রুট পারমিট ছাড়াই রাস্তায় চলাচল করছে। এই ইজিবাইকের বিদ্যুৎ খাত থেকে সরকার কোনো রাজস্ব পাচ্ছে না। এ কারণে সারাদেশে চলা অবৈধ ইজিবাইক বন্ধের নির্দেশনা চেয়ে আমরা হাইকোর্টে রিট করি।

গত ১৩ ডিসেম্বর বাঘ ইকো মোটরস লিমিটেডের সভাপতি কাজী জসিমুল ইসলামের পক্ষে হাইকোর্টে রিটটি করা হয়। রিটে শিল্প সচিব, সড়ক পরিবহন সচিব, পরিবেশ সচিবসহ ৭ জনকে রিটে বিবাদী করা হয়।

আপনার মন্তব্য লিখুন

আপনার ইমেইল ঠিকানা প্রকাশিত হবে না।