অমানবিক চাঁদাবাজি না করে যুবসমাজকে প্রশিক্ষণের পথে আসতে বললেন কুজেন্দ্র লাল ত্রিপুরা

খাগড়াছড়িতে জাতীয় যুব দিবস পালন উপলক্ষে সেলাই মেশিন-ঋণ ও সনদপত্র বিতরণ অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথির বক্তব্যে খাগড়াছড়ির সংসদ সদস্য এবং প্রতিমন্ত্রী পদ-মর্যাদার শরণার্থী টাস্কফোর্স চেয়ারম্যান কুজেন্দ্র লাল ত্রিপুরা অমানবিক চাঁদাবাজির পথ ছেড়ে যুব সমাজকে সরকারি প্রশিক্ষণ ও ঋণ নিয়ে স্বাবলম্বীতার পথ অনুসরণ করার আহ্বান জানিয়েছেন।

তিনি অভিযোগ করে বলেন, দরিদ্র নারীরা জীবন বাঁচানোর তাগাদায় দিনভর কষ্ট করে হাটে বাজারে এক কেজি বাঁশকরুল নিয়ে গেলেও চাঁদা দিতে হচ্ছে। কষ্টে পালিত একটি মুরগী, একছড়া কলা বিক্রি করতে গেলেও চাঁদার খড়গ নেমে আসে। এটা কোনভাবেই মানা যায় না। খাগড়াছড়ির খেটে খাওয়া মানুষের জীবন যাপনের পথে এটি একটি বড় বাধা।

আজ সোমবার খাগড়াপুরস্থ যুব উন্নয়ন প্রশিক্ষণ কেন্দ্রে জাতীয় যুব দিবস উপলক্ষে ঋণের চেক, সেলাই মেশিন ও সনদ পত্র বিতরণ অনুষ্ঠানে সভাপতিত্ব করেন, পার্বত্য জেলা পরিষদ চেয়ারম্যান মংসুইপ্রু চৌধুরী অপু।

অনুষ্ঠানে বিশেষ অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন অতিরিক্ত জেলা প্রশাসক আবু সাঈদ, সদর উপজেলা পরিষদ চেয়ারম্যান মোঃ শানে আলম, যুব উন্নয়ন অধিদপ্তরের আহ্বায়ক ও জেলা পরিষদ সদস্য হিরনজয় ত্রিপুরা, যুব উন্নয়ন অধিদপ্তরের উপ- পরিচালক মোঃ মিজানুর রহমান, সদর উপজেলা যুব উন্নয়ন কর্মকর্তা বিপেন্দু চাকমা।
অনুষ্ঠানে ১৩ জন বেকার যুব ও যুবাকে ৭ লক্ষ টাকার যুব ঋণ, ১০ জন যুবাকে সেলাই মেশিন ও ৫ জনকে যুব সনদ পত্র বিতরণ করা হয়।

এসময় খাগড়াছড়ি সদর উপজেলার ভাইস- চেয়ারম্যান আকতার হোসেন, খাগড়াছড়ি সাংবাদিক ইউনিয়নের সভাপতি প্রদীপ চৌধুরী এবং সা: সম্পাদক সৈকত দেওয়ান উপস্থিত ছিলেন।

আরও পড়ুন
আপনার মন্তব্য লিখুন

আপনার ইমেইল ঠিকানা প্রকাশিত হবে না।