আট দিন পর আওয়ামীলীগ নেতা মংমংথোয়াই হত্যায় থানায় মামলা

নিহত মং প্রু থোয়াই

বান্দরবান রোয়াংছড়ি উপজেলার তারাছা ইউনিয়নের আওয়ামীগীগের সভাপতি মংমংথোয়াই মারমা হত্যাকান্ডের ঘটনায় ৮ দিন পর নিহতের বড় ভাই মামলা দায়ের করেছেন ।

পুলিশ জানায়, রোয়াংছড়ি তারাছা ইউনিয়নের আওয়ামীলীগ এর সভাপতি মংমংথোয়াই মারমা হত্যা ঘটনায় তার বড় ভাই চাইহ্লা উ মারমা বাদী হয়ে সদর থানায় একটি হত্যা মামলা দায়ের করেন। এই মামলায় পার্বত্য চট্টগ্রাম জনসংহতি সমিতি ( জেএসএস) এর অজ্ঞাতনামা ১০/১৫ জনের বিরুদ্ধে (৬নং ধারা) মামলা করা হয়েছে।

এ ব্যাপারে মুঠোফোনে যোগাযোগ করা হলে বাদী চাইহ্লা উ জানান, রোয়াংছড়ি থেকে বান্দরবান সদরে আসার পথে দিন দুপুরে আমার ভাইকে পাহাড়ী সংগঠন জেএসএস সন্ত্রাসীরা গুলি করে হত্যা করেছে। এই ধরনের হত্যা কখনোই কাম্য নয়। তাই অতিদ্রুত এই নিশৃংস হত্যাকান্ড যারা ঘটিয়েছে তাদের গ্রেফতারের দাবী করছি। হত্যাকরীদের দৃষ্টান্তমূলক শাস্তির আশায় বান্দরবান সদর থানা একটি হত্যা মামলা দায়ের করা হয়ছে ।

এ বিষয়ে বান্দরবান সদর থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) শহীদুল ইসলাম জানান, নিহতের বড় ভাই আওয়ামীলীগের নেতা মংমংথোয়াই হত্যা ঘটনায় বাদী হয়ে থানা মামলা দায়ের করেছে। এই ঘটনায় এখনও পর্যন্ত কাউকে আটক করতে পারেনি । তবে মামলায় আসামীদের গ্রেফতারের চেষ্টার অভিযান অব্যাহত রয়েছে।

প্রসঙ্গত, গত সোমবার (২১ জুলাই) দুপুরে জেলা আওয়ামীলীগের সম্মেলনকে সামনে রেখে উপজেলা পার্যায়ে এক প্রস্তুতি সভা শেষে ফেরার পথে সন্ত্রাসীদের গুলিতে নিহত হন মংমংথোয়াই মারমা। তিনি রোয়াংছড়ি উপজেলা তারাছা ইউনিয়নের আওয়ামীলীগের সভাপতি ছিলেন।

আরও পড়ুন

আপনার মন্তব্য লিখুন

আপনার ইমেইল ঠিকানা প্রকাশিত হবে না।