আলীকদমে বন্যহাতির আক্রমণে নিহতের পরিবারকে আর্থিক সহায়তা

বান্দরবানের আলীকদমে বন্য হাতির আক্রমণে নিহত ও আহত পরিবারকে নগদ অর্থ ও ত্রাণ সামগ্রী দিয়েছে সেনাবাহিনী ও লামা বন বিভাগ।

সোমবার (২৫ জানুয়ারি) দুপুরে আলীকদম মিষ্টিবাড়ী ক্যান্টিনে প্রতিটি পরিবারকে নগদ ৫ হাজার টাকা এবং ত্রাণ সামগ্রী হিসেবে ১০ কেজি চাল ও কম্বল দিয়েছে সেনাবাহিনী । এছাড়াও লামা বন বিভাগীয় কর্মকর্তার পক্ষ থেকে প্রতিটি পরিবারকে ১০ হাজার টাকা দেয়া হয় । সহায়তা প্রদান করেন আলীকদম সেনা জোনের ভারপ্রাপ্ত উপ-অধিনায়ক ও জোনাল স্টাফ অফিসার মেজর ইমতিয়াজ জামান চৌধুরী ও লামা বনবিভাগের বিভাগীয় বন কর্মকর্তা এসএম কায়চার।

এসময় আলীকদম সেনাজোনের জোন জেসিও ইকরামুল হক, আলীকদম তৈন রেঞ্জ কর্মকর্তা জহির উদ্দিন মিনার চৌধুরীসহ আলীকদম সেনাজোনের ও বনবিভাগের বিভিন্ন কর্মকর্তারা উপস্থিত ছিলেন।
লামা বনবিভাগের বন কর্মকর্তা এসএম কায়চার(ডিএফও) বলেন, বন উজার করে মানুষের বসবাস, সীমান্তে কাঁটাতারের বেঁড়া, রেল সড়কসহ নানা স্থাপনার কারণে বন্যপ্রাণীর আবাসস্থল ক্রমেই ধ্বংস হয়ে যাচ্ছে। তাই বাধ্য হয়ে মাঝে মাঝে লোকালয়ে হানা দিচ্ছে হাতি।মানুষ আতংকিত হয়ে হাতিকে আক্রমণ চেষ্টা করলে হাতিও পাল্টা আক্রমণ করে।এতে হতাহতের ঘটনা ঘটছে।

এদিকে আলীকদম সেনা জোনের ভারপ্রাপ্ত উপ-অধিনায়ক ও জোনাল স্টাফ অফিসার ইমতিয়াজ জামান চৌধুরী জানান, হাতি চলাচলের পথে বাঁধা সৃষ্টি করা যাবে না । এ বিষয়ে সবাইকে সচেতন হতে হবে । যারা নিহত হয়েছে,তাদের অভাব পূরণ করা সম্ভব নয়। নিহতের পরিবার ও জনগণের বিপদে আপদে জনগণের পাশে সেনাবাহিনী সবসময় ছিল ও থাকবে।

শনিবার দিনগত রাতে বন্যহাতির লোকালয়ে নেমে আসলে পাড়াবাসী চারপাশ ঘিরে রাখে এবং হাতির গাঁয়ে আগুন দেয়ার চেষ্টা করলে হাতির পাল্টা আক্রমণে দুই যুবক নিহত ও এক যুবক আহত হয়।

আরও পড়ুন

আপনার মন্তব্য লিখুন

আপনার ইমেইল ঠিকানা প্রকাশিত হবে না।