উপজেলা মহিলা ভাইস চেয়ারম্যানের অপসারন চায় রাঙামাটি ছাত্রলীগ

অনৈতিক কর্মকান্ড, ছাত্রলীগ নেতাকর্মীদের জড়িয়ে মিথ্যা, বানোয়াট, ষড়যন্ত্রমূলক ও উদ্দেশ্য প্রণোদিত বক্তব্যের প্রতিবাদে রাঙামাটি সদর উপজেলা ভাইস চেয়ারম্যানের পদ থেকে নাসরিন ইসলামের অপসারন চেয়েছে রাঙামাটি জেলা ছাত্রলীগ।

আজ মঙ্গলবার (১ সেপ্টেম্বর) সকালে জেলা আওয়ামী লীগ কার্যালয়ে রাঙামাটি জেলা ছাত্রলীগ আয়োজিত সংবাদ সম্মেলনে সংগঠনের নেতারা এ দাবি তুলেন।

সংবাদ সম্মেলনে জেলা ছাত্রলীগের সভাপতি আব্দুল জব্বার সুজন, সহ সভাপতি হাবিবুর রহমান হাবিব, সহ সম্পাদক আনোয়ার হোসেন কায়সার, কলেজ ছাত্রলীগের সাবেক প্রচার সম্পাদক মেজবা উদ্দিন, ছাত্রনেতা ইমরোজ উদ্দিন প্রমূখ উপস্থিত ছিলেন। লিখিত বক্তব্য পাঠ করেন ছাত্রলীগের সাধারণ সম্পাদক প্রকাশ চাকমা।

প্রকাশ চাকমা লিখিত বক্তব্যে মহিলা ভাইস চেয়ারম্যান নাসরিনকে অনুপ্রবেশকারী, ষড়যন্ত্রকারী ও কুচক্রী উল্লেখ করে বলেন, তিনি গত ২৯ আগস্ট সংবাদ সম্মেলনে রাঙ্গামাটি জেলা শাখা ছাত্রলীগের সভাপতি এবং কতিপয় নেতাকর্মীর নাম জড়িয়ে মিথ্যা, বানোয়াট, মানহানিকর, বিভ্রান্তিমূলক বক্তব্যের ভিডিও ফুটেজ ছাত্রলীগ রাঙ্গামাটি জেলা শাখার দৃষ্টি গোচরে এসেছে এবং উক্ত সংবাদ সম্মেলনের লিখিত বক্তব্য হস্তগত হয়েছে। এরপর পরই যেহেতু দায়িত্বশীল ছাত্রসংগঠনের নেতাকর্মীদের বিষয়ে অভিযোগ আনা হয়েছে, সেহেতু অত্র সংগঠনের পক্ষ হতে মহিলা ভাইস চেয়ারম্যানে বাসায় ১৯আগস্ট রাতে সংগঠিত ঘটনার বিষয়ে অনুসন্ধান কার্যক্রম পরিচালনা করা হয়েছে।

তিনি বলেন, প্রাথমিক অনুসন্ধানে প্রাপ্ত তথ্যে জানা যায় মহিলা ভাইস চেয়ারম্যান নাসরিন ইসলাম একজন স্বামী পরিত্যক্তা। তিনি আলম ডক ইয়ার্ড এলাকায় একজন ভাড়াটিয়া মাত্র। পক্ষান্তরে তিনি নিজেকে বাড়ির মালিক হিসেবে দাবী করেন। তাছাড়া আলম ডক ইয়ার্ড এলাকায় বাসা ভাড়া নেবার পর বিভিন্ন বিতর্কিত কর্মকান্ডের জন্য নিন্দিত। তিনি একজন জনপ্রতিনিধি। তার নিজস্ব দাপ্তরিক কার্যালয় এবং অফিস কর্ম সময় রয়েছে। রাত ১২টায় নিজ দাপ্তরিক কার্যালয় ও দাপ্তরিক কর্ম সময় ব্যতিরেখে নিজ বাসভবনে উনার কথা মতে নুরুল আলম (নৈতিকস্খলন জনিত কারণে ছাত্রলীগ হতে বহিস্কৃত) এর সাথে টিউবওয়েল বরাদ্দের মতো জরুরী কর্ম সম্পাদনের মিটিং কোন নৈতিক ও যৌক্তিক মানদন্ডে গ্রহণযোগ্য হতে পারে তা আমাদের বোধগম্য নয়। আমাদেও প্রশ্ন উক্ত নুরুল আলম রাঙ্গামাটি সদর উপজেলার কোন ইউনিয়নের প্রতিনিধিত্ব করেন? উক্ত নাসরিন ইসলাম কি পৌরএলাকায় টিউবওয়েল বরাদ্দ দেয়ার ক্ষমতা রাখেন কিনা?

তিনি বলেন, নাসরিন ইসলাম ছাত্রজীবনে রাঙ্গামাটি সরকারি কলেজ শাখার ছাত্রদলের সহছাত্রী বিষয়ক সম্পাদিকা হিসাবে নেতৃত্ব ছিলেন এবং জাতীয়তাবাদী সাংস্কৃতিক সংস্থা (জাসাস) এর একজন সক্রিয় কর্মী। তিনি স্বাধীনতা বিরোধী এবং জাতির জনক বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের আদর্শ বিদ্বেষী ধ্যান ধারণা অন্তরে লালন করে ক্ষমতা লিপ্সা নিয়ে আওয়ামী লীগে অনুপ্রবেশে প্রচেষ্টা লিপ্ত আছেন যা তার কর্মকান্ডে প্রতিফলিত হচ্ছে।

লিখিত বক্তব্যে প্রকাশ চাকমা আরো বলেন, গত ২৯আগস্ট সংবাদ সম্মেলনে নাসরিন ইসলাম বাংলাদেশ ছাত্রলীগকে ঢালাওভাবে সন্ত্রাসী সংগঠন উল্লেখ করে যে বক্তব্য দিয়েছেন আমরা রাঙ্গামাটি ছাত্রলীগের পক্ষ থেকে তার নিন্দা ও প্রতিবাদ জানাচ্ছি।

আরও পড়ুন

আপনার মন্তব্য লিখুন

আপনার ইমেইল ঠিকানা প্রকাশিত হবে না।