এক সেতুতে মেরুংবাসীর দীর্ঘদিনের প্রত্যাশা পূরণ

নদীর দুপাড়ে যারা বসবাস করে তাদের পারাপারের গুরুত্বপূর্ণ মাধ্যম হলো সেতু। একটি সেতুই পারে দুপারের মানুষের ভাগ্য বদল করে সম্প্রীতির অনন্য দৃষ্টান্ত স্থাপন করতে৷ তেমনি খাগড়াছড়ির দীঘিনালার ছোট মেরুং ও রাঙ্গামাটির বাঘাইছড়ি (মারিশ্যা) উপজেলার যোগাযোগ স্থাপনে মাইনী নদীর উপর দিয়ে পার্বত্য চট্টগ্রাম অবকাঠামো উন্নয়ন প্রকল্প-২য় পর্যায় (RIDP CHT-2) আওতায় প্রায় সাড়ে চার কোটি টাকা ব্যয়ে ৬০ মিটার দীর্ঘ আরসিসি গার্ডার সেতু নির্মাণ করলো আওয়ামী লীগ সরকার।

এছাড়াও সেতুর দুপারে ৫০ মিটার সড়ক নির্মাণ কাজ শেষ হয়েছে। এলাকাবাসী মুখিয়ে ছিলেন সেতু পার হয়ে সড়কে কখন বাঘাইছড়ি (মারিশ্যা) যাবেন। শেষ হলো তাদের অপেক্ষার প্রহর। গত ২৬ মার্চ সেতুটির আনুষ্ঠানিক উদ্বোধন করেন শরনার্থী বিষয়ক টাস্কফোর্সের চেয়ারম্যান কুজেন্দ্র লাল ত্রিপুরা এমপি। তিনি প্রতিশ্রুতি দেন মেরুং-বাঘাইহাট সড়কটির কাজও দ্রুত শুরু হবে৷ তাছাড়া উদ্বোধনের পর থেকে ভারী যান চলাচল না করলেও মোটরসাইকেল ও হালকাযানে খুব অল্প সময়ে মানুষ যাতায়াত করছেন সাচ্ছন্দে৷ এ সেতু থেকে বাঘাইছড়ি সড়ক নির্মাণ শেষ হলে খুব অল্প সময়ে দুই উপজেলার জনসাধারণ আর্থ সামাজিক যোগাযোগে ব্যাপক সুফল পাবে।

জানা যায়, পার্বত্য চট্টগ্রাম অবকাঠামো উন্নয়ন প্রকল্প-২য় পর্যায় (RIDP CHT-2) প্রকল্পের আওতায় ২০১৯-২০ অর্থবছরে অনুমোদিত প্রায় সাড়ে চার কোটি টাকা ব্যয়ে ছোট মেরুং বাজার সংলগ্ন মাইনী নদীর উপর সেতু ও সেতুর দুপারে ৫০ মিটার সংযোগ সড়কের নির্মাণকাজ ২০২০ সাল থেকে শুরু করে ঠিকাদারি প্রতিষ্ঠান মেসার্স সেলিম এন্ড ব্রাদার্স। করোনা সংক্রমণ পরিস্থিতিতে কিছুটা পিছিয়ে গেলেও এবছর নির্মাণকাজ শেষ হয়েছে।

উপজেলা প্রকৌশলী (এলজিইডি) রাজু আহমেদ জানান, আলহামদুলিল্লাহ আমরা এ সেতুটি নির্মাণ কাজ শেষ করেছি৷ খুব অল্প সময়ের মধ্যে মেরুং-বাঘাইছড়ি (মারিশ্যা) সড়ক নির্মাণ কাজ শুরু হবে।

মেরুং ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান মাহমুদা বেগম লাকী বলেন, শরনার্থী বিষয়ক টাস্কফোর্সের চেয়ারম্যান বাবু কুজেন্দ্র লাল ত্রিপুরা এমপি ও দীঘিনালা উপজেলা পরিষদের চেয়ারম্যান হাজী মোহাম্মদ কাশেম মহোদয়ের আন্তরিক প্রচেষ্টায় ছোট মেরুং বাসীর দীর্ঘদিনের প্রত্যাশা পূরণ হলো৷

এ বিষয়ে দীঘিনালা উপজেলা পরিষদের চেয়ারম্যান হাজী মোহাম্মদ কাশেম জানান, দীঘিনালায় অকল্পনীয় উন্নয়ন দৃশ্যমান। ছোটমেরুং এলাকার পাশাপাশি হাচিনসনপুরেও সেতু নির্মাণ কাজ শেষ পর্যায়ে। বর্তমান সরকারের ধারাবাহিক উন্নয়নে দীঘিনালা একটি মডেল উপজেলায় রূপান্তরিত হচ্ছে।

আরও পড়ুন
আপনার মন্তব্য লিখুন

আপনার ইমেইল ঠিকানা প্রকাশিত হবে না।