এদেশে সব ধর্মের মানুষ স্বাধীনভাবে ধর্ম পালন করছে : দীপংকর তালুকদার এমপি

এদেশে সব ধর্মের মানুষ স্বাধীনভাবে তাদের ধর্ম পালন করছেন,এটাই বাংলাদেশের বৈশিষ্ট। প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার আন্তরিক ইচ্ছা এদেশে সকল ধর্মের মানুষের উৎসবে সকলে একাকার হয়ে অংশ নিবে,তারই প্রতিফলন ঘটছে এদেশে।

আজ বুধবার (২৫ডিসেম্বর) সকালে খ্রীস্টান সম্প্রদায়ের শুভ বড় দিন উপলক্ষ্যে চন্দ্রঘোনা ব্যাপ্টিষ্ট চার্চ এর আয়োজনে খ্রীস্টিয়ান হাসপাতাল এর অডিটরিয়ামে প্রার্থনা সভায় প্রধান অতিথি বক্তব্যে রাঙামাটির সাংসদ দীপংকর তালুকদার এমপি একথা বলেন।

সাংসদ দীপংকর তালুকদার আরো বলেন,প্রভু যীশু খ্রীস্টের বাণী আমাদেরকে সত্য ও সুন্দরের পথ দেখাই এবং অসাম্প্রদায়িক হতে শেখায়।

চন্দ্রঘোনা খ্রীস্টিয়ান হাসপাতাল এর পরিচালক ডা: প্রবীর খিয়াং এর সভাপতিত্বে এসময় কাপ্তাই উপজেলা পরিষদ চেয়ারম্যান মফিজুল হক,রাঙামাটির জেলা আওয়ামী লীগের শ্রম বিষয়ক সম্পাদক মো: হানিফ, কাপ্তাই উপজেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি অংসুইছাইন চৌধুরী,সাধারণ সম্পাদক ইব্রাহীম খলিল, কাপ্তাই থানার ওসি নাছির উদ্দিন, ১নং চন্দ্রঘোনা ইউনিয়ন পরিষদ চেয়ারম্যান আনোয়ারুল ইসলাম চৌধুরী (বেবী),চট্রগ্রাম এবং পার্বত্য চট্রগ্রাম আঞ্চলিক ব্যাপ্টিষ্ট চার্চ এর সভাপতি বিপ্লব মারমা,রাঙামাটির জেলা সাংবাদিক ফোরামের সভাপতি নন্দন দেবনাথ,কাপ্তাই প্রেস ক্লাবের সাধারণ সম্পাদক ঝুলন দত্তসহ খ্রীস্টান সম্প্রদায়ের অদিবাসীরা উপস্থিত ছিলেন।

শুভ বড়দিন উপলক্ষ্যে সমবেত প্রার্থনা,খ্রীস্ট সংগীত পরিবেশন করা হয়। সমবেত প্রার্থনা পরিচালনা করেন চন্দ্রঘোনা ব্যাপ্টিষ্ট চার্চ সংঘের পালক রেবারেন্ড সখরীয়া বৈরাগী।

এদিকে শুভ বড়দিন উপলক্ষ্যে চন্দ্রঘোনা খ্রীস্টান পল্লীগুলো সেজেছে অপরুপ সাজে। বর্ণিল আলোয় আলোকিত হয়েছে সমস্ত খ্রীস্টান পল্লী। পিঠা,পায়েস, কেকসহ নানা উপাদেয় খাবার পরিবেশন করা হচ্ছে প্রতিটি ঘরে।

একে অপরকে শুভেচ্ছা বিনিময়,গীফট বিনিময় করে দিনটিকে স্মরণ করছেন এখানকার খ্রীস্টান অদিবাসীরা।

আরও পড়ুন

আপনার মন্তব্য লিখুন

আপনার ইমেইল ঠিকানা প্রকাশিত হবে না।