কল্পনা চাকমার অপহরণকারীদের গ্রেফতারের দাবিতে রাঙামাটিতে বিক্ষোভ

কল্পনা চাকমার অপহরণকারীদের গ্রেফতারের দাবিতে রাঙামাটিতে বিক্ষোভ
“শুনানীর নামে অপহরণকারীদের রক্ষার ষড়যন্ত্র পার্বত্যবাসী মেনে নেবে না” এই শ্লোগানে হিল উইমেন্স ফেডারেশনের নেত্রী কল্পনা চাকমা’র চিহ্নিত অপহরণকারী লে: ফেরদৌস, পিসি সালেহ আহম্মেদ ও ভিডিপি সদস্য নুরুল হকের গ্রেফতারের দাবিতে রাঙামটির কুতুকছড়িতে বিক্ষোভ মিছিল ও সমাবেশ করেছে পার্বত্য চট্টগ্রামের চার নারী সংগঠন হিল উইমেন্স ফেডারেশন, পার্বত্য চট্টগ্রাম নারী সংঘ, ঘিলাছড়ি নারী নির্যাতন প্রতিরোধ কমিটি ও সাজেক নারী সমাজ। হিল উইমেন্স ফেডারেশন এর রাঙামাটি জেলা শাখার দপ্তর সম্পাদক বিমান্তি চাকমা স্বাক্ষরিত এক সংবাদ বিজ্ঞপ্তিতে এ তথ্য জানানো হয়।
সোমবার সকাল ১১ টায় কুতুকছড়ি বড় মহাপূরম উচ্চ বিদ্যালয় গেট থেকে একটি বিক্ষোভ মিছিল বের করা হয়। মিছিলটি কুতুকছড়ি বাজার প্রদক্ষিণ শেষে পূনরায় একই স্থানে এসে এক প্রতিবাদ সমাবেশে মিলিত হয়।
ঘিলাছড়ি নারী নির্যাতন প্রতিরোধ কমিটির সাবেক সভাপতি শান্তি প্রভা চাকমার সভাপতিত্বে ও হিল উইমেন্স ফেডারেশনের রাঙামাটি জেলা শাখার সদস্য দয়াসোনা চাকমার সঞ্চালনায় সমাবেশে বক্তব্য রাখেন হিল উইমেন্স ফেডারেশনের রাঙামাটি জেলা শাখার সভাপতি ও কেন্দ্রীয় সদস্য মন্টি চাকমা, পার্বত্য চট্টগ্রাম নারী সংঘের কেন্দ্রীয় সাধারণ সম্পাদক কাজলী ত্রিপুরা, সাজেক নারী সমাজের সভাপতি নিরূপা চাকমা, ঘিলাছড়ি ইউপি মহিলা মেম্বার শান্তনা চাকমা, রামহরি পাড়ার মহিলা কার্বারী শান্তনা চাকমা।
বক্তারা বলেন, ১৯৯৬ সালের ১২ জুন কল্পনা চাকমাকে তৎকালীন কজইছড়ি ক্যাম্পের লে: ফেরদৌস, পিসি সালেহ আহমেদ এবং ভিডিপি নুরুল হকের নেতৃত্বে বাঘাইছড়ির নিউ লাল্যাঘানার নিজ বাড়ী থেকে অপহরণ করা হয়। অপহরণের ২১ বছর অতিবাহিত হওয়ার পরও অদ্যাবধি কল্পনা চাকমা‘র অপহরণের সঠিক তদন্ত রিপোর্ট প্রকাশ ও অপরাধীদের গ্রেফতার করা হয়নি। এ পর্যন্ত দাখিলকৃত প্রতিটি তদন্ত রিপোর্টে অপহরণকারীদের রক্ষায় সকল রকম চেষ্টা চালানো হয়েছে।

আরও পড়ুন
1 মন্তব্য
  1. Khine Kyaw বলেছেন

    কলপনার অপহরনকিরি ফাসি চাই।

আপনার মন্তব্য লিখুন

আপনার ইমেইল ঠিকানা প্রকাশিত হবে না।