কাপ্তাইয়ের তিনছড়ি-ভাল্লুকিয়ায় যোগাযোগের সড়ক যেন মরণ ফাঁদ

কাপ্তাইয়ের তিনছড়ি-ভাল্লুকিয়ায় যোগাযোগের সড়ক
মরণ ফাঁদে পরিণত হয়েছে রাঙামাটি জেলার কাপ্তাই উপজেলার ২ নং রাইখালী ইউনিয়নের দূূর্গম ভালুকিয়ার একমাত্র যোগাযোগ সড়কটি। কাপ্তাই উপজেলা সদর থেকে প্রায় ১০ কিলোমিটার দুরত্বে এই তিনছড়ি- ভালুকিয়া সড়ক ও কারিগড় পাড়া-চন্দ্রঘোনা এর সড়কের বিভিন্ন অংশে খানা-খন্দ সৃষ্টির ফলে সড়কগুলো যান চলাচলের অনুপযোগী হয়ে গেছে।
ভালুকিয়া-তিনছড়ি বাসীর চলাচলের একমাত্র মাধ্যম এই সড়ক হয়ে প্রতিদিন শত শত মানুষ যাতায়াত করে। সড়কটির অবস্থান পাহাড় বেয়ে হওয়ায় এটি অন্য যেকোন সড়কের চেয়ে গুরুত্ব বহন করে এলাকাবাসী জন্য। তাছাড়া বিভিন্ন মালামাল ও ইট বহনের ট্রাক, মিনি-ট্রাকও এ সড়ক দিয়ে চলাচল করে। প্রাথমিক ও মাধ্যমিক স্কুল, কমিউনিটি ক্লিনিক, বিহারসহ বিভিন্ন প্রতিষ্ঠান রয়েছে এর এলাকা ভিতরে। স্কুল শিক্ষার্থী কিংবা শিক্ষকদের যাতায়াত করা খুবই কষ্টকর হয়ে পরেছে।
সরেজমিন দেখা যায়, চলতি বর্ষা মৌসুমে বৃষ্টির কারণে এই‌ যোগাযোগ সড়কে প্রায় ৩ কিলোমিটারসহ বিভিন্ন স্থানে ছোট-বড় অসংখ্য গর্তের সৃষ্টি হয়েছে।প্রতিদিন ঝুঁকি নিয়ে চলছে শত যানবাহন। অনেকদিন ধরে ভালুকিয়া-তিনছড়ির কয়েক হাজার লোকের যাতায়াতের অন্যতম মাধ্যম এই সড়কটির যান চলাচলের অনুপযোগী হয়ে পড়লেও সংস্কারের কোন উদ্যেগ দেখা যাচ্ছে না।
স্থানীয় রাইখালী ইউপি চেয়ারম্যান সায়ামং মারমা জানান, বিষয়টি কর্তৃপক্ষকে জানালেও কোন পদক্ষেপ নেওয়া হয়নি,সামান্য বৃষ্টি হলেই জমে যায় পানি। ফলে চলাচল অনুপযোগী হয়ে পড়ে রাস্তাটি। থেমে থেমে চাঁদের গাড়ি, মোটর বাইক চলাচল করলেও বিকল হয়ে যায়। অতিদ্রুত সড়কটি মেরামতের জন্য এলাকাবাসী কর্তৃপক্ষের হস্তক্ষেপ কামনা করেছেন।

আরও পড়ুন
আপনার মন্তব্য লিখুন

আপনার ইমেইল ঠিকানা প্রকাশিত হবে না।