কাপ্তাইয়ের মা-মেয়ে জোড়াখুনের ২ আসামী গ্রেফতার

রাঙামাটি জেলার কাপ্তাই উপজেলার রাইখালী ইউনিয়নের চন্দ্রঘোনা থানাধীন গবাছড়া এলাকায় গত বছরের ১ জুলাই রাতে চাঞ্চল্যকর মা-মেয়ে (ম্রাসাং খই মারমা ৬০, মেয়ে- সাংনু মারমা ২৯)কে ব্রাশ ফায়ারে হত্যাকান্ডে জড়িত মূল ঘাতক মেহলা মারমা ওরফে সানি মারমা(৩৪) কে গ্রেফতার করেছে পুলিশ।

রাঙামাটি জেলার চন্দ্রঘোনার ২ নং রাইখালির ক্যজাইহলা মারমা ওরফে পুতুল মারমার সন্তান। তাকে খাগড়াছড়ির লক্ষীছড়ি এলাকা থেকে সেনাবাহিনী ও লক্ষীছড়ি থানা পুলিশের সহায়তায় গ্রেফতার করা হয়।

তাদের স্বীকারোক্তি ও তথ্য মতে, জড়িত অপর আসামী মোঃ রবিউল আলম ওরফে বাবুল (২২)কে চট্টগ্রামের রাঙ্গুনিয়া থেকে গ্রেফতার করা হয়েছে। সে রাঙ্গুনিয়ার ১০ নং পদুয়া ইউনিয়নের ছিফছড়ি পাড়ার মোঃ ইব্রাহিম এর সন্তান।

চন্দ্রঘোনা থানার অফিসার ইনচার্জ মোহাম্মদ আশরাফ উদ্দিন এর নেতৃত্বে মামলার তদন্তকারী কর্মকর্তা পুলিশ পরিদর্শক (তদন্ত) মোঃ শফিউল আজম, এসআই মিশন বিশ্বাস, এসআই মোঃ জাহাঙ্গীর আলম, এএসআই কাউছার হোসেন সঙ্গীয় ফোর্স সহকারে অভিযান পরিচালনা করিয়া গত ২১ মার্চ আসামীদের খাগড়াছড়ির জেলার লক্ষীছড়ি ও রাঙ্গুনিয়া হতে গ্রেফতার করে।

আসামীদ্বয় বিজ্ঞ আদালতে ফৌঃকাঃবিঃ ১৬৪ ধারায় স্বীকারোক্তি মূলক জবানবন্দি প্রদান করিয়া ঘটনার বিস্তারিত বিবরণ প্রদান করে বলেন জানান চন্দ্রঘোনা থানার অফিসার্স ইনচার্জ আশরাফ উদ্দিন।

গ্রেফতারকৃতদের আজ রবিবার (২২মার্চ) রাঙামাটি কোর্টে প্রেরণ করা হয়েছে বলে জানান ওসি।

আরও পড়ুন

আপনার মন্তব্য লিখুন

আপনার ইমেইল ঠিকানা প্রকাশিত হবে না।