কাপ্তাইয়ে অধ্যক্ষের অপসারণের দাবিতে মানববন্ধন

বাংলাদেশ সুইডেন পলিটেকনিক ইনস্টিটিউটের (বিএসপিআই)

কাপ্তাইয়ের বাংলাদেশ সুইডেন পলিটেকনিক ইনস্টিটিউটের (বিএসপিআই) অধ্যক্ষ (অতিরিক্ত দায়িত্ব) আব্দুল মতিন হাওলাদারের বিরুদ্ধে বিভিন্ন অনিয়মের অভিযোগ এনে তাঁর অপসারণের দাবিতে মঙ্গলবার (৪ ফেব্রুয়ারি) দুপুরে প্রতিষ্ঠানের মূল ফটকে সাধারণ ছাত্রছাত্রীরা ব্যানারে মানববন্ধন করেছে শিক্ষার্থীরা।

প্রতিষ্ঠানটির অধ্যক্ষ আব্দুল মতিন হাওলাদারের বিরুদ্ধে অনিয়ম, দূর্নীতি, স্বেচ্ছাচারিতা ও শিক্ষার্থীদের উপর অনৈতিকভাবে মানসিক নির্যাতনসহ জামায়াতি রাজনীতিকরণের অভিযোগ এনে মানববন্ধনে শিক্ষার্থীরা বলেন, তিনি শিক্ষার্থীদের সঙ্গে দূর্ব্যবহার, ইচ্ছামাফিক হোস্টেলের সিট বরাদ্দ, প্রতিষ্ঠানের উন্নয়ন কাজে অনিয়মসহ বিভিন্ন অনিয়মের সঙ্গে জড়িত রয়েছেন। তিনি প্রতিষ্ঠানের শিক্ষার্থীদের উপর নিজের প্রভাব খাটিয়ে ‘ইয়ার লস’ করিয়ে দেন।

তুচ্ছ বিষয়ে কয়েকজন শিক্ষার্থীদের ইতিপূর্বে বদলী করার ঘটনার কথা বলতে গিয়ে মানববন্ধনে অংশ নেওয়া শাকিল আহম্মেদ নামে এক শিক্ষার্থী অভিযোগ করে বলেন, কথায় কথায় বহিষ্কার করার হুমকি দেন তিনি (অধ্যক্ষ)। বলির পাঁঠা হিসেবে আমাকে ঢাকা পলিটেকনিকে বদলী করা হয়েছে। তিনি এই অধ্যক্ষের অপসারণের দাবি করেন।

ক্যাম্পাস গেইটে অনুষ্ঠিত মানববন্ধনে শতাধিক শিক্ষার্থীর অংশ নেয়। মানববন্ধন শেষে সমাবেশে বক্তব্য রাখেন শিক্ষার্থী রিফাত, আবু বকর, লাভলু দাশ সহ আরো অনেকে। সমাবেশে তাদের দাবি আদায় না হওয়া পর্যন্ত অধ্যক্ষকে অবাঞ্চিত ঘোষনা করে ক্লাস বর্জনের ঘোষনা দেয়। পরে কাপ্তাই উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা বরাবরে তারা লিখিত অভিযোগ দেন।

এই বিষয়ে জানতে চাইলে বিএসপিআই অধ্যক্ষ (অতিরিক্ত দায়িত্ব) আব্দুল মতিন হাওলাদার তাঁর বিরুদ্ধে আনিত সকল অভিযোগ অস্বীকার করে বলেন, এখানে ইচ্ছাকৃতভাবে কাউকে অকৃতকার্য করিয়ে দেওয়ার সুযোগ নেই। উদ্দেশ্যমূলকভাবে কারো ইন্ধনে আমাকে হেয় করতে এসব করা হচ্ছে। পড়ালেখা না করলে ইয়ার লস হবেই। পরীক্ষার খাতায় নাম ঠিকানা লেখা থাকেনা। এখানে কে কোন এলাকার তার জানার কোন সুযোগই থাকেনা। কাউকে বদলি

আরও পড়ুন

আপনার মন্তব্য লিখুন

আপনার ইমেইল ঠিকানা প্রকাশিত হবে না।