কাপ্তাইয়ে আনন্দ শোভাযাত্রা

বঙ্গবন্ধুর ভাষণ আন্তর্জাতিক স্বীকৃতি লাভ করায় রাঙামাটির কাপ্তাইয়ে আনন্দ শোভাযাত্রা
জাতিসংঘ শিক্ষা,বিজ্ঞান ও সংস্কৃতি সংস্থা ( ইউনেস্কো) কর্তৃক জাতির জনক বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের ঐতিহাসিক ৭ই মার্চের ভাষণ বিশ্ব ঐতিহ্যের দলিল হিসাবে স্থান পাওয়ায় রাঙামাটির কাপ্তাই উপজেলা প্রশাসনের উদ্যোগে শনিবার আনন্দ শোভাযাত্রা এবং সাংস্কৃতিক অনুষ্ঠান অনুষ্ঠিত হয়।
উপজেলা কেন্দ্রীয় শহীদ মিনার হতে শুরু হয়ে আনন্দ শোভাযাত্রাটি উপজেলার বিভিন্ন গুরুত্বপূর্ণ সড়ক প্রদক্ষিন করে আবার কেন্দ্রীয় শহীদ মিনারে এসে শেষ হয়। কাপ্তাই উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা তারিকুল আলমের নেতৃত্বে আনন্দ শোভাযাত্রায় উপজেলা আ’লীগ সভাপতি অংসুইচাইন চৌধুরী, কাপ্তাই থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা সৈয়দ মো: নুর সহ সরকারি কর্মকর্তা, কর্মচারী, মুক্তিযোদ্ধা, রাজনৈতিক দলের নেতা কর্মী,স্কুল কলেজের ছাত্র ছাত্রী, শিক্ষক, জনপ্রতিনিধি, সাংবাদিক, শিল্পী,এনজিও কর্মকর্তা, হেডম্যান, কার্বারী, ধর্মীয় নেতৃবৃন্দ এবং সমাজের বিভিন্ন স্তরের গণ্যমান্য ব্যাক্তিবর্গ অংশ নেন।
আনন্দ শোভাযাত্রা শেষে কেন্দ্রীয় শহীদ মিনারে আলোচনা সভায় বক্তাগণ বলেন, ঐতিহাসিক ৭ই মার্চের রেসকোর্স ময়দানের জাতির জনকের সেই ভাষণ বাংলাদেশের স্বাধীনতাকামী মানুষকে আন্দোলিত করেছে। পরবর্তীতে আমরা দীর্ঘ ৯ মাসের যুদ্ধে ৩০ লক্ষ শহীদের বিনিময়ে পেয়েছি বঙ্গবন্ধুর সোনার বাংলাদেশ।
শোভাযাত্রা শেষে উপজেলা কেন্দ্রীয় শহীদ মিনারে কাপ্তাই উপজেলা শিল্পকলা একাডেমীর শিল্পীরা পরিবেশন করেন বঙ্গবন্ধুকে নিয়ে রচিত গান এবং দেশাত্ববোধক সংগীত। এদিকে ইউনেস্কো কতৃর্ক ঐতিহাসিক ৭ই মার্চের ভাষণ বিশ্ব দলিলে স্থান পাওয়ায় কাপ্তাই উপজেলার বিভিন্ন শিক্ষাপ্রতিষ্ঠানে আনন্দ শোভাযাত্রা বের হয়।

আরও পড়ুন
আপনার মন্তব্য লিখুন

আপনার ইমেইল ঠিকানা প্রকাশিত হবে না।