কাপ্তাইয়ে করোনা সনাক্তের বিপরীতে সুস্থতার হার বাড়ছে

রাঙামাটির কাপ্তাই উপজেলায় গত ২৫ মে ১ম দুইজন ব্যক্তির করোনা সনাক্ত হয়। এর পর থেকে ধাপে ধাপে বৃদ্ধি পায় করোনা রোগীর সংখ্যা। সর্বশেষ গত ২ জুলাই কাপ্তাইয়ে আরোও ৬ জনের করোনা সনাক্ত হয়। এ নিয়ে কাপ্তাই উপজেলায় করোনা রোগীর সংখ্যা দাঁড়ালো ৭৪ জনে এবং এর মধ্যে স্বাস্থ্য বিভাগ সর্বশেষ গত ১ জুলাই ৬ জনকে সুস্হ ঘোষণার মাধ্যমে সর্বোমোট ২৭ জনকে সুস্থ ঘোষণা করেছে।

গত ৩১ মে কাপ্তাই উপজেলার রাইখালী পূর্ব কোদালা গ্রামে একজন নার্স যুবক করোনা উপসর্গ নিয়ে মৃত্যুবরণ করার পর পরবর্তীতে তার করোনা রিপোর্ট পজেটিভ আসে। অবশ্যই তিনি চট্রগ্রাম রয়েল হাসপাতালে কর্তব্যরত অবস্হায় করোনায় আক্রান্ত হন।

এদিকে কাপ্তাই স্বাস্থ্য বিভাগের করোনা ফোকাল পার্সন ডাঃ ওমর ফারুক রনি জানান, কাপ্তাইয়ে করোনা সনাক্ত এর বিপরীতে সুস্থতার হার বাড়ছে এবং সেই সাথে করোনা সনাক্ত হওয়া ব্যক্তিদের মধ্যে কারো অবস্থা সংকটাপন্ন নেই, পূর্বে সকলের মৃদু উপসর্গ থাকলেও বর্তমানে তারা সকলে সুস্থ আছেন। তিনি আরো জানান, অধিকাংশ রোগীরা নিজেদের বাসায় আইসোলেশনে থেকে চিকিৎসকের পরামর্শ অনুযায়ী চিকিৎসা নিচ্ছেন। তিনি আরো বলেন, কাপ্তাইে মৃত্যবরণ করা ওই যুবক চট্টগ্রাম রয়েল হাসপাতালে কর্মরত ছিলো পরবর্তী করোনা উপসর্গ নিয়ে তার গ্রামের বাড়িতে আসে এবং সেইখানে তার মৃত্যু হয়েছে।

করোনায় আক্রান্ত কাপ্তাই থানার ওসি নাসির উদ্দীন জানান, ইতিমধ্যে কাপ্তাই থানা এবং চন্দ্রঘোনা থানার ৩৩ জন পুলিশ সদস্যের করোনা পজেটিভ এসেছে। তিনি জানান, প্রায়ই পুলিশ সদস্যের লক্ষণ মৃদু। তাই তারা ফাঁড়ি এবং হোম আইসোলেশনে থেকে চিকিৎসা নিয়ে ভালো হচ্ছেন।

কাপ্তাই উপজেলা স্বাস্থ্য ও পরিবার পরিকল্পনা কর্মকর্তা ডা: মাসুদ আহমেদ চৌধুরী জানান, এই পর্যন্ত কাপ্তাইয়ে করোনা সনাক্তের মধ্যে সিরিয়াস তেমন কোন রোগী পাওয়া যায় নাই, অধিকাংশ রোগীর লক্ষণ মৃদু, তাই তারা হোম আইসোলেশনে থেকে আমাদের সাথে পরামর্শ নিয়ে করোনা মুক্ত হচ্ছেন।

আরও পড়ুন

আপনার মন্তব্য লিখুন

আপনার ইমেইল ঠিকানা প্রকাশিত হবে না।