কাপ্তাইয়ে গুলিতে একজন নিহত

রাঙামাটির কাপ্তাই ও রাজস্থলী উপজেলার সীমান্তবর্তী এলাকায় দুর্বৃত্তের গুলিতে একজন নিহত হয়েছেন।
আজ বৃহস্পতিবার (৮জুলাই) চন্দ্রঘোনা থানার আওতাধীন ২ নং রাইখালী ইউনিয়ন এর ৮ নং ওয়ার্ডের তিনছড়ি নোয়াপাড়া এলাকায় এই ঘটনা ঘটে। রাতে রাঙামাটির অতিরিক্ত পুলিশ সুপার (প্রশাসন) মারুফ আহমেদ বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন।

তিনি আরও জানান, ঘটনাস্থলে পুলিশ গিয়েছে, সেখানে মোবাইল নেট না থাকায় তাদের সাথে যোগাযোগ করা সম্ভব হচ্ছেনা। তারা ফিরে না আসা পর্যন্ত কিছুই বলা যাচ্ছে না। পাহাড়ে ৪টি অঞ্চলিক দলের প্রভাব রয়েছে এই ঘটনায় কারা নিহত বা করা ঘটিয়েছে সেই বিষয়ে জানাতে চাইলে তিনি বলেন, এখনো বিষয়গুরো পরিস্কার না। ওসি ফিরে আসলে আপনাদের জানানো হবে।

তবে বিভিন্ন সূত্র থেকে জানা গেছে,চন্দ্রঘোনা থানায় নারানগিরি ও মিতিয়াছড়ি এলাকায় সস্ত্রাসী সংগঠনের দুই গ্রুপের মধ্যে দফায় দফায় ৫০-৬০ রাউন্ড গুলি বিনিময় হয়। এতে একজন নিহতও খবর পাওয়া গেছে। নিহত ব্যক্তি পার্বত্য চট্টগ্রাম জনসংহিত সমিতির সদস্য বলে জানা যায়। তবে

রাঙামাটি কাপ্তাই উপজেলার রাইখালি ইউপি চেয়ারম্যান সায়ামং মারমা বলেন,আমিও স্থানীয়ভাবে গুলোগুলির বিষয়টি শুনেছি। বিভিন্নভাবে এলাকায় খবর নেয়ার চেষ্টা করছি।

কাপ্তাই সার্কেল এর অতিরিক্ত দায়িত্বে থাকা অতিরিক্ত পুলিশ সুপার তাপস রঞ্জন ঘোষ জানান, দুপুরে গোলাগুলির খবর পেয়ে চন্দ্রঘোনা থানার পুলিশ ঘটনা শোনার সাথে সাথে ঘটনাস্থলে চলে যায়।

তিনি আরও জানান, তিন ছড়ি নামক এলাকায় ৪৫ বছরের এক যুবকের লাশ উদ্ধার করা হয় এবং তার মাথায় আঘাতের চিহ্ন দেখতে পাওয়া যায়। আগামী কাল ময়না তদন্তের পর বিষয়টি পরিস্কার হবে। তবে ঘটনার সাথে কারা জড়িত সেটি নিশ্চত হওয়া যায়নি।

এদিকে শেষ খবর পাওয়া পর্যন্ত রাত ৯.৩০ মিনিটে চন্দ্রঘোনা থানার ওসি ইকবাল বাহার চৌধুরীর নেতৃত্বে পুলিশ সদস্যরা ঘটনাস্থল হতে লাশটি উদ্ধার করে চন্দ্রঘোনা থানায় নিয়ে আসেন।

আরও পড়ুন
আপনার মন্তব্য লিখুন

আপনার ইমেইল ঠিকানা প্রকাশিত হবে না।