কাপ্তাইয়ে প্রকাশ্যে গুলি করে ১ জনকে হত্যা

রাঙামাটি জেলার কাপ্তাই উপজেলার ৫ নং ওয়াগ্গা ইউনিয়নের ৫ নং ওয়ার্ড এর বড়ইছড়ি – ওয়াগ্গা সড়কের ২ কিমি পূর্বে ভাইজ্যাতলি পাগলি মধ্যম পাড়া এলাকায় প্রকাশ্য দিবালোকে একজনকে গুলি করে হত্যা করেছে পাহাড়ের অস্ত্রধারী সন্ত্রাসীরা।

আজ সোমবার (৮ জুন) সকাল ৯ টায় এই হত্যাকান্ড সংগঠিত হয় বলে স্থানীয়রা জানান। নিহতের নাম পদ্ম কুমার চাকমা (৫০)। তিনি সদর উপজেলার ভেদভেদী উদনন্দী আদাম এর মৃত সুরেশ চন্দ্র চাকমার ছেলে। স্থানীয়দের কাছে থেকে ঘটনার খবর পেয়ে সকাল ১০ টায় কাপ্তাই থানার ওসি নাসির উদ্দীন সঙ্গীয় ফোর্সসহ ঘটনাস্থল গিয়ে নিহতের মরদেহ উদ্ধার করেন।

এই বিষয়ে কাপ্তাই থানার ওসি নাসির উদ্দীন জানান, ঐ লোক সকাল ৯ টায় পাগলি মধ্যম পাড়ার চা ও মুদি দোকানদার নতুন চন্দ্র এর দোকানে বসেছিল, সেই সময় ৩ জন অস্ত্রধারী সন্ত্রাসীরা এসে তাকে দোকানের বারান্দায় গুলি করে। গুলি খেয়ে ঐ লোক দোকানের ভিতরে ঢুকে আত্মরক্ষার চেষ্টা করলে অস্ত্রধারীরা দোকানের পেছনে দরজা লাথি মেরে ডুকে তাকে আবারোও গুলি করলে ঘটনাস্থলে তাঁর মৃত্যু হয়।

স্থানীয় দোকানদার নতুন চন্দ্র তংচঙ্গ্যা জানান, নিহত লোকটি মাঝে মাঝে তার দোকানে এসে বসতো। আজ সকাল ৯ টায় তিনি দোকানের বাহিরে বারান্দায় বসে কলা খাচ্ছিলেন। সেই সময় ৩ জন অস্ত্রধারী এসে তার সামনে তাকে গুলি করে হত্যা করে পাহাড়ের দিকে চলে যায়। প্রকাশ্য দিবালোকে একজনকে হত্যার পর ঐ এলাকায় স্থানীয়দের মাঝে আতংক বিরাজ করছে।

এদিকে ঘটনাস্থলে সকাল ১১ টার পর নিহতের স্ত্রী এবং তার কন্যা উপস্থিত হন এবং নিহতের লাশ সনাক্ত করেন।

নিহতের স্ত্রী রুপা চাকমা জানান, তার স্বামী একসময় আঞ্চলিক দল জেএসএস কর্মী ছিল। তার প্রতিপক্ষরা তাকে হত্যা করতে পারে বলে তিনি জানান।

শেষ খবর পাওয়া পর্যন্ত নিহতের লাশ ময়নাতদন্তের জন্য রাঙামাটি হাসপাতাল এর মর্গে পাঠানো হয়েছে। এই ব্যাপারে মামলা দায়ের প্রস্ততি চলছে বলে কাপ্তাই থানার ওসি জানান।

আরও পড়ুন
Loading...