কাপ্তাইয়ে সততা স্টোর : ছাত্র ছাত্রীদের সততায় মুগ্ধ শিক্ষকরা

বড়ইছড়ি কর্ণফুলি নুরুল হুদা কাদেরী উচ্চ বিদ্যালয়ের শিক্ষকরা ক্যাশ বাক্স খুলছেন
ছাত্র ছাত্রীদের মাঝে সততা ও নৈতিকতা বৃদ্ধির লক্ষে দূর্নীতি দমন কমিশন সারা দেশের প্রতিটি উপজেলায় একটি বিদ্যালয়ে সততা স্টোর কার্যক্রম চালু করেছে। বিক্রেতা বিহীন এই বিক্রয় কেন্দ্রে শিক্ষার্থীরা স্টোরে রাখা খাতায় ক্রেতার নাম,পণ্য ও পণ্যের নাম লিখে নির্ধারিত ক্যাশ বাক্সে টাকা রাখবেন এবং টিফিন সামগ্রী নিবেন। গত ২১ আগস্ট রাঙামাটির কাপ্তাই উপজেলা সদর বড়ইছড়ি কর্ণফুলি নুরুল হুদা কাদেরী উচ্চ বিদ্যালয়ে এই কার্যক্রম শুরু হয়।
স্কুলের প্রধান শিক্ষক জয়সীম বড়ুয়া জানান, সততা স্টোরে দুদকের দেওয়া ১৫ হাজার টাকা হতে ২৫০০ টাকার বিভিন্ন সামগ্রী রাখা হয়েছে। গত বৃহস্পতিবার ক্যাশ বাক্স খুলে দেখা যায় সর্বমোট ১৭০০ টাকা বিক্রি হয়েছে এবং হিসাব করে দেখা যায় স্টোরে রক্ষিত পণ্যের সাথে বিনোয়োগকৃত মুলধন এবং বর্তমান মুলধনে কোন গড়মিল পাওয়া যাইনি।
তিনি আরো জানান, এই বিদ্যালয়ের শিক্ষার্থীরা শতভাগ সততার সাথে সততা স্টোর হতে পণ্য ক্রয় করেছেন। যা স্কুলের সকল শিক্ষককে মুগ্ধ করেছে।
এদিকে স্কুল পরিচালনা কমিটির সভাপতি বিশিষ্ট প্রাবন্ধিক আমীনুর রশিদ কাদেরী অনুভুতি ব্যক্ত করতে গিয়ে বলেন, দুদকের এই কার্যক্রম একজন শিক্ষার্থীকে সৎ,নিষ্ঠাবান, ন্যায়পরায়ণ ও সমাজ সচেতন ব্যক্তিজীবন গড়তে কার্যকর ভূমিকা রাখবে। কাপ্তাই উপজেলা দূর্নীতি প্রতিরোধ কমিটির সভাপতি উপজেলা মুক্তিযোদ্ধা কমান্ডার শাহাদাত হোসেন চৌধুরী বলেন, কাদেরী উচ্চ বিদ্যালয়ের শিক্ষার্থীদের সততার উদাহরন সারা দেশের জন্য রোল মডেল হয়ে থাকবে।

আরও পড়ুন
আপনার মন্তব্য লিখুন

আপনার ইমেইল ঠিকানা প্রকাশিত হবে না।