কাপ্তাইয়ে হাতি-মানুষ দ্বন্দ নিরসন ও বন্যপ্রাণী সংরক্ষণে জনসচেতনতামূলক সভা

পার্বত্যঞ্চলে বণ্যপ্রাণীর অবাসস্থল ধবংস,বন উজাড়,এবং বিভিন্ন প্রক্রিয়ায় বন্যপ্রাণীদের নির্যাতনের ফলে হাতি-মানুষ দ্বন্দ সৃষ্টি হচ্ছে। বাংলাদেশের বন্যপ্রাণী রক্ষায় সরকার ইতিমধ্যে সোলার লাইট,পশুখাদ্য বাগান, আবাসস্থল,ও মানুষের নিরাপত্তার জন্য বন বিভাগ বিভিন্ন প্রকল্প ও হাতে নিয়েছে।

সোমবার (৭ডিসেম্বর) পার্বত্য চটগ্রাম দক্ষিণ বন বিভাগের আয়োজনে কাপ্তাই এফডিটিসি ছাত্র রেস্ট হাউজ চত্বরে ‘হাতি-মানুষ দ্বন্দ নিরসন ও হাতি সহ বন্যপ্রাণী সংরক্ষণ বিষয়ক” এক জন সচেতনতামূলক সভায় বক্তারা একথা বলেন।

কাপ্তাই রেঞ্জ কর্মকর্তা এস এম মাহাবুব উল আলমের সঞ্চালনায় কাপ্তাই উপজেলা নির্বাহী অফিসার মুনতাসির জাহানের সভাপতিত্বে সভায় প্রধান অতিথি ছিলেন,কাপ্তাই বন উন্নয়ন ও প্রশিক্ষণ কেন্দ্রের পরিচালক মোঃ বখতিয়ার নূর সিদ্দিকী। বিশেষ অতিথি হিসাবে উপস্থিত থেকে বক্তব্য রাখেন,কাপ্তাই পাল্প উড বাগান এর বিভাগীয় কর্মকর্তা (ডিএফও) মোঃ আবুল কালাম,পার্বত্য চট্রগ্রাম দক্ষিণ বন বিভাগয় কর্মকর্তা (ডিএফও) রফিকুজ্জামান শাহ্,কাপ্তাই উপজেলা পরিষদ চেয়ারম্যান মোঃ মফিজুল হক। অনুষ্ঠানে স্বাগত বক্তব্য রাখেন,সহকারী বন সংরক্ষক মোস্তাফিজুর রহমান।

সমাবেশে অন্যান্যদের মধ্যে বক্তব্য রাখেন,কাপ্তাই সহকারী কমিশনার(ভুমি) মাঈনুল হাসান চৌধুরী, কাপ্তাই ইউপি চেয়ারম্যান প্রকৌশলী আব্দুল লতিফ,সিএমসি সভাপতি কাজী মাকসুদুর রহমান বাবুল,হেডম্যান থোয়াইঅং মারমা,মাহমুদ উল্লা শাহ প্রমুখ।

সভায় প্রধান অতিথি বলেন, হাতি দেশের সম্পদ,এদের রক্ষা আপনার আমার সকলের দায়িত্ব,আজ আমরা এদের খাদ্য,বনজসম্পদ উজাড় করার কারনে এরা লোকলয়ে আসছে এবং আমাদের বিভিন্ন ভাবে সমস্যা করছে।

আরও পড়ুন
আপনার মন্তব্য লিখুন

আপনার ইমেইল ঠিকানা প্রকাশিত হবে না।