কাপ্তাইয়ে ৩ হাজার লিটার চোলাই মদসহ আটক ২

রাঙামাটির কাপ্তাই থানা পুলিশের অভিযানে সাম্প্রতিক সময়ে সর্ববৃহৎ চোলাই মদ আটক করা হয়েছে। গত ১৪ ডিসেম্বর (মঙ্গলবার) রাত ৮.৪৫ টায় কাপ্তাই উপজেলার ১ নং চন্দ্রঘোনা ইউপি এলাকাধীন মিশন এলাকার থানাঘাট সংলগ্ন কর্নফুলী নদীতে ৩ হাজার লিটার দেশীয় তৈরি চোলাই মদসহ ১টি ইঞ্জিন চালিত বোট আটক করা হয়।

জানা যায়, প্রতিটি বস্তায় ৩০ লিটার করে মোট ১০০ টি প্লাস্টিকের বস্তায় চোলাই মদ মজুদ ছিলো। যার আনুমানিক মূল্য ৯ লাখ টাকা। এইসময় বোটে থাকা দুইজনকে হাতে নাতে আটক করা হয় এবং ৪ জন পালিয়ে যায়। আটককৃত ব্যাক্তির নাম ১/ আনু প্রু মারমা (৪৭) ও সায়মন মারমা (২৫), তারা উভয় রাইখালী ইউপির ডলুছড়ি এলাকার বাসিন্দা।

কাপ্তাই থানা অফিসার ইনচার্জ মোঃ নাসির উদ্দীন জানান, গোপন সংবাদের ভিত্তিতে আমরা জানতে পারি একটি বিশাল মদের চালান বোট দিয়ে পাচার করা হবে। এরপর রাত ৮. ৪৫ টার দিকে ইঞ্জিন চালিত একটি বোটকে থামার জন্য সংকেত দিলে, উক্ত বোটটি পালিয়ে যাবার চেষ্টা করে। এই সময় আমাদের সঙ্গে থাকা বোট দিয়ে ঐ বোটকে ধাওয়া করলে তারা কর্নফুলি নদীর উত্তর পাড়ে থানাঘাট সিঁড়িঘাটে নৌকাটি থামিয়ে পালানোর চেষ্টা করে। এইসময় এই বিশাল মদের চালান আটক করি এবং ২ জনকে হাতেনাতে ধরে ফেলি। আসামীদের সঙ্গে থাকা ৪ জন পালিয়ে যায়। আটক কৃত আসামীদের বিরুদ্ধে মাদকদ্রব্য নিয়ন্ত্রণ আইনে মামলা দায়ের করা হয়েছে এবং তাদের রাঙ্গামাটি কোর্টে প্রেরণ করা হয়েছে।

এদিকে গতকাল রাত ১১.৩০ মিনিটে চন্দ্রঘোনা থানার এসআই মোঃ কাউছার হোসেন এর নেতৃত্বে পুলিশের একটি দল কাপ্তাই উপজেলার ২ নং রাইখালী ইউপি এলাকাধীন খন্তাকাটা নামক স্থানে চট্টগ্রাম থ- ১৪-০০৩৩ নম্বরের একটি সিএনজি আটক করে। উক্ত সিএনজি তল্লাশি চালিয়ে ষ্টিলের বক্সভর্তি সাদা প্লাষ্টিকের পলিথিনে মোড়ানো ২৩ টি পলিথিনের প্যাকেট যাহার প্রতি প্যাকেটে ১ লিটার করে সর্বমোট ২৩ লিটার দেশীয় তৈরি চোলাই মদ উদ্ধার করে। এইসময় হেফাজতে চোলাই মদ পাচার করার অভিযোগে সিএনজি চালক মোঃ মোবিনুল ইসলাম (৩০) আটক করে।

চন্দ্রঘোনা থানার ওসি ইকবাল বাহার চৌধুরী জানান, আটককৃত আসামি বিরুদ্ধে মাদকদ্রব্য নিয়ন্ত্রণ আইনে মামলা করা হয়েছে এবং তাঁকে রাঙ্গামাটি কোর্টে প্রেরণ করা হয়েছে।

আরও পড়ুন
আপনার মন্তব্য লিখুন

আপনার ইমেইল ঠিকানা প্রকাশিত হবে না।