কাপ্তাই হ্রদে মাছ আহরণ শুরু মধ্যরাত থেকে , কর্মচাঞ্চল্য ফিসারী ঘাটে

যেন উৎসবের প্রস্তুতি। দীর্ঘ চারমাস পর আজ (১লা সেপ্টেম্বর) মধ্যরাত হতে কাপ্তাই হ্রদে মাছ আহরনে ঝাঁপিয়ে পড়বে মৎস্য জীবিকার সাথে সবাই। তাই জেলে পাড়া থেকে শুরু করে ফিসারী ঘাটে প্রাণের কর্মচাঞ্চলতা। ফিসারী ঘাট থেকে শুরু করে কাপ্তাই হ্রদের আনাচে কানাচে সবখানে যেন মাছ ধরার সবশেষ প্রস্তুতির কর্মযজ্ঞ। মাছ আহরণ শুরু হচ্ছে, এ খাত সংশ্লিস্ট সকলেই ভীষন খুশি।

গত কয়েকমাসে করোনার থাবায় দুমরে মুচরে যাওয়া জীবনে গতি ফেরাতে সকলেই এখন ব্যতিব্যস্ত।
প্রায় চার মাস বন্ধ থাকার পর আবারও রাঙামাটির কাপ্তাই হ্রদে মাছ শিকার শুরু হচ্ছে ১লা সেপ্টেম্বও অর্থাৎ আজ মধ্যরাত থেকে। অন্যান্য বছর তিনমাস বন্ধ থাকতো মাছ আহরণ। কিন্তু কাপ্তাই হ্রদে পানি কম থাকায় দফায় দফায় আরো এক মাস বাড়ানো হয়। এ নিয়ে মৎস্যজীবীদের মাঝে ফিরে এসেছে কর্মচাঞ্চল্যতা।

১লা সেপ্টেম্বর রাত ১২টা থেকে হ্রদে মাছ শিকারের ওপর নিষেধাজ্ঞা প্রত্যাহার করেছে রাঙামাটি জেলা প্রশাসন। তবে হ্রদে পোনা মাছ নিধনের বিরুদ্ধে কঠোর আইনানুগ ব্যবস্থা গ্রহণের নির্দেশ দেয়া হয়েছে। চলতি মৌসুমে কাপ্তাই হ্রদে মাছের সুষ্ঠু ও প্রাকৃতিক প্রজনন, বংশ বিস্তার এবং উৎপাদন বৃদ্ধির জন্য গত ১লা মে থেকে মাছ শিকার, আহরণ ও বাজারজাতের ওপর নিষেধাজ্ঞা জারি করে জেলা প্রশাসন।

এছাড়া এর মধ্যেই মাছের প্রজনন মৌসুম শেষ হয়েছে বলেও জানিয়েছেন বাংলাদেশ মৎস্য উন্নয়ন কর্পোরেশনের (বিএফডিসি) মৎস্য কর্মকর্তারা। অন্যদিকে প্রায় চার মাস পর কাপ্তাই হ্রদে আবারও মাছ শিকারে প্রস্তুত জেলেরা। তাদের মাঝে ফিরে এসেছে কর্মচাঞ্চল্য। জেলেরা জানান, করোনার থাবা ও মাছ আহরণ নিষেধাজ্ঞার কারনে চার মাস কর্মহীন হয়ে বসে থাকতে হয়েছে। নিষেধাজ্ঞা প্রত্যাহারে স্বস্তি ফিরে পান তারা।

রাঙামাটি জেলা প্রশাসক মোঃ মিজানুর রহমান জানান, চলতি মৌসুমে মাছের প্রাকৃতিক প্রজনন, উৎপাদন ও বংশ বিস্তার সুষ্ঠুভাবে সম্পন্ন হওয়ায় হ্রদে মাছ শিকার, আহরণ ও বিপণনের ওপর জারি করা নিষেধাজ্ঞা তুলে নেয়া হচ্ছে। আগামী ১লা সেপ্টেম্বর মধ্যরাত থেকে হ্রদে সব ধরনের মাছ শিকার, আহরণ, পরিবহন ও বিপণন স্বাভাবিকভাবে করা যাবে।

জানা গেছে, কাপ্তাই হ্রদে মাছের ওপর নির্ভরশীল প্রায় ১ লাখ মৎস্যজীবী। এছাড়া মৎস্য ব্যবসায়ী ও পরিবহন শ্রমিকসহ রয়েছে আরও বহু মৎস্যজীবী। চার মাস পর আবার সচল হয়ে উঠছে তাদের জীবিকা।

আরও পড়ুন
আপনার মন্তব্য লিখুন

আপনার ইমেইল ঠিকানা প্রকাশিত হবে না।