কিশোর সাগর মিয়াকে পঙ্গুত্বের হাত থেকে বাঁচাতে মানবিক সাহায্যের আবেদন

news2বান্দরবানের লামা পৌরসভার লাইন ঝিরি ০৮ নং ওয়ার্ডের বাসিন্দা মৃত খোরশেদ আলমের পুত্র সাগর মিয়া (১৫) সড়ক দূর্ঘটনায় গুরুতর আহত হয়ে বাম হাত বাম পা ভেঙ্গে অর্থের অভাবে চিকিৎসা করতে না পেরে পঙ্গু হওয়ার আশঙ্কায় বাড়িতে কাতরাচ্ছে।
স্বাভাবিক ভাবে অন্য সকল শিশু কিশোরের মত লেখা পড়া, হাসি খুশি ও আনন্দের মধ্যে চলছিল কিশোর সাগর মিয়ার জীবন। লাইন ঝিরি মোহাম্মদিয়া দাখিল মাদ্রাসার ৭ম শ্রেণীর ছাত্র ছিল সাগর মিয়া। ২০১৫ সালের প্রথম দিকে পরিবারের একমাত্র উপার্জন কারী ব্যাক্তি তার বাবার মৃত্যু হলে অভাবের তাড়নায় জীবন জীবিকার তাগিদে ঢাকা গিয়ে বাসের হেলপার হিসেবে চাকুরি নেয়, স্বাভাবিক ভাবে মা ভাই বোন নিয়ে চলছিল সাগর মিয়ার জীবন
ভাগ্যের নির্মম পরিহাসের কারনে গত ৮/৬/২০১৬ ইং তারিখে বাস দূর্ঘটনায় তার বাম পা বাম হাত ভেঙ্গে মারাত্মক ভাবে ক্ষতি গ্রস্থ হয়। প্রথমে স্থানিয়রা উদ্বার করে সাগর মিয়াকে ঢাকা মেডিকেল কলেজ হাসপালে ভর্তি করায়, সেখান থেকে চিকিৎসা শেষে এখন বাম হাত বাম পায়ে ব্যন্ডেজ প্লাস্টার সহ বাড়িতে আছে। বাম কাঁধের সাথে হাতের সংযোগ স্থলের হাঁড় ভেঙ্গে যাওয়া ও ঐ স্থানে ক্ষত হওয়ার কারনে ধীরে ধীরে পচন ধরছে। গত ২১/০৭/১৬ ইং তারিখে কক্্রবাজার জেলা সদর হাসপাতালের সহকারী রেজিষ্টার ডাঃ গোলাম মোস্তফা নাদিম এর সাথে দেখা করলে অপারেশনের মাধ্যমে সুস্থ হওয়া সম্ভব বলে জানায় তিনি। এরপর সাগর মিয়ার মা ছেলেকে সুস্থ করতে সমাজের বিত্তবান সকল মানুষের কাছে সহযোগিতার জন্য হাত বাড়ান। চিকিৎসকেরা জানায় সাগর মিয়ার হাঁড়ের অপারেশন করতে ৪০ হাজার টাকার প্রয়োজন হবে, কিন্তুু হত-দরিদ্র সাগর মিয়ার মায়ের পক্ষে এই টাকা যোগার করা সম্ভব না হওয়ায় ছেলেকে নিয়ে প্রতিদিন লামা আলীকদম সড়কের লাইন ঝিরিতে নিয়ে ভিক্ষা করছে। মানবিক কারনে হতদরিদ্র একটি পরিবারের পাশে দাড়িয়ে সদ্য জীবন শুরু করা কিশোর সাগর মিয়াকে পঙ্গুত্বের হাত থেকে বাঁচাতে আর্থিক সহযোগিতা করতে সমাজের সকলেরে প্রতি আহব্বান করছে সাগর মিয়ার মা আয়েশা বেগম

যোগযোগের ঠিকানা
লাইন ঝিরি জলিলের দোকান ০৮ নং ওয়ার্ড লামা পৌরসভা
মোবাইলঃ ০১৮৮১৬৯৭৫৭৩ (আয়েশা বেগম) সাগর মিয়ার মা, ০১৮২৫৪৪২৩১০ বিকাশ (পার্সোনাল)

আরও পড়ুন

আপনার মন্তব্য লিখুন

আপনার ইমেইল ঠিকানা প্রকাশিত হবে না।