খাগড়াছড়িতে জেএসএস কর্মী খুন : দুই জনপ্রতিনিধিসহ দশজনের বিরুদ্ধে মামলা, গ্রেপ্তার ১

খাগড়াছড়ির পানছড়িতে গত ১৬ জুন দুর্বৃত্তের গুলিতে জনসংহতি সমিতি এমএন লারমা গ্রুপের কর্মী বিজয় ত্রিপুরা খুনের ঘটনায় দুই জনপ্রতিনিধিসহ দশজনের বিরুদ্ধে মামলা হয়েছে।
গতরাত (সোমবার) পানছড়ি থানায় নিহত বিজয় ত্রিপুরার স্ত্রী কালিন্দী চাকমা ইউপিডিএফ সমর্থিত পানছড়ি উপজেলা পরিষদ চেয়ারম্যান সর্বোত্তম চাকমা, লোগাং ইউপি চেয়ারম্যান প্রত্যুত্তর চাকমা, ইউপিডিএফ প্রসিত গ্রুপের পানছড়ি উপজেলা শাখার সামরিক শাখার কমান্ডার সমাজপতি চাকমাসহ দশজনের নাম উল্লেখ করে মামলা দায়ের করেন। মামলার এজহারভুক্ত আসামী দেবদাশ চাকমাকে সোমবার দিবাগত রাতে পানছড়ির নালকাটা এলাকা থেকে গ্রেপ্তার করে পুলিশ।
পানছড়ি থানার অফিসার ইনচার্জ(ওসি) মিজানুর রহমান গ্রেপ্তারের সত্যতা নিশ্চিত করে বলেন, নিহতের স্ত্রী দুই জনপ্রতিনিধিসহ দশজনের নাম উল্লেখ করে মামলা দায়ের পর অভিযান চালিয়ে পুলিশ এজহারভুক্ত এক আসামীকে গ্রেপ্তার করেছে।
উল্লেখ্য, গত ১৬ জুন বিকেলে পানছড়ি উপজেলার মরাটিলা এলাকায় দুর্বৃত্তের গুলিতে খুন হয় জনসংহতি সমিতি এমএন লারমা গ্রুপের কর্মী বিজয় ত্রিপুরা। হত্যাকান্ডের জন্য প্রতিপক্ষ ইউপিডিএফ প্রসিত গ্রুপকে দায়ী করা হলেও সংগঠনটির পক্ষ থেকে তা অস্বীকার করা হয়।

আরও পড়ুন
আপনার মন্তব্য লিখুন

আপনার ইমেইল ঠিকানা প্রকাশিত হবে না।