খাগড়াছড়িতে দুপুর ২ টার পর অঘোষিত লক ডাউন

করোনা ভাইরাসের সংক্রামণ প্রতিরোধে সামাজিক দূরত্ব বজায় রাখতে সাধারণ ছুটির মেয়াদ বাড়লেও জনগণকে সচেতন করা যাচ্ছে না। প্রশাসনের পক্ষ থেকে কঠোর অবস্থানে থাকার পরও মানছে না অনেকে। এমন অবস্থায় আরও কঠোর অবস্থানে গিয়ে রোববার থেকে খাগড়াছড়ি জেলায় অঘোষিত লক-ডাউনের প্রস্তুতি নিয়েছে স্থানীয় প্রশাসন।

জেলা প্রশাসকের কার্যালয়ের সম্মেলন কক্ষে করোনা ভাইরাস প্রতিরোধে গঠিত কমিটির বিশেষ সভা থেকে আজ রোববার (১২ এপ্রিল) থেকে অনির্দিষ্টকালের জন্য দুপুর ২ টার পর থেকে ঔষধের দোকান ছাড়া সকল প্রকার ব্যবসা প্রতিষ্ঠান ও গণপরিবহন এবং ব্যক্তিগত পরিবহন চলাচল নিষেধাজ্ঞা আরোপ করা হয়েছে। তবে জরুরী সেবাখাত এর আওতামুক্ত থাকবে।

সভায় খাগড়াছড়ির সংসদ সদস্য কুজেন্দ্র লাল ত্রিপুরা ছাড়াও খাগড়াছড়ি রিজিয়নের অধিনায়ক ব্রিগেডিয়ার জেনারেল ফয়জুর রহমান, গুইমারা রিজিয়নের অধিনায়ক মোহাম্মদ শাহরিয়ার জামান, জেলা প্রশাসক প্রতাপ চন্দ্র বিশ্বাস, সিভিল সার্জন ডা. নুপুর কান্তি দাশ ও পুলিশ সুপার আব্দুল আজিজ সহ সামরিক বেসামরিক উধ্বর্তন কর্মকর্তারা উপস্থিত ছিলেন।

জানা গেছে, গত ১ এপ্রিল থেকে ১১ এপ্রিল পর্যন্ত খাগড়াছড়িতে সামাজিক দূরত্ব বজায় না রাখা এবং আইন ভঙ্গ করায় ৫৩৬ ব্যক্তিকে দণ্ড দিয়েছে জেলা-উপজেলা প্রশাসনের ভ্রাম্যমান আদালত। আগামীতে তা আরও কঠোর হবে বলে জানিয়েছেন জেলা প্রশাসক প্রতাপ চন্দ্র বিশ্বাস।

তিনি আরও জানান, পার্বত্য চট্টগ্রামের প্রধান সামাজিক উৎসব বৈসাবী উদযাপনে যাতে কোন জনসমাগম কিংবা অনুষ্ঠান করা না হয় সেদিকে নজর রাখতে তৎপর রয়েছে আইনশৃঙ্খলা বাহিনী ও প্রশাসন।

আরও পড়ুন
Loading...