খাগড়াছড়িতে নিন্মআয়ের মানুষের জন্য সামাজিক নিরাপত্তামূলক কার্যক্রম শুরু : জেলা প্রশাসক

করোনা প্রতিরোধে সামাজিক দূরত্ব বজায় রাখতে সরকারের ১০ দিনের সাধারণ ছুটির প্রভাব পড়েছে পাহাড়ী জেলা খাগড়াছড়িতে। এতে করে দূর্ভোগে পড়েছে নিন্মআয়ের মানুষজন। সাধারণ ছুটি চলাকালীন স্থানীয় জেলা প্রশাসকদের মাধ্যমে নিন্মআয়ের মানুষের জন্য খাদ্য শস্য বিতরণের নিদের্শনা দিয়েছেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা। সে নির্দেশনা বাস্তবায়িত হচ্ছে খাগড়াছড়িতে।

আজ শনিবার (২৮মার্চ) থেকে জেলার নয় উপজেলায় ১০ মেট্টিক টন করে খাদ্য শস্য ও নগদ ৫০ হাজার টাকা বরাদ্দ দেয়া হয়েছে। আগামী ৪ এপ্রিল পর্যন্ত এ কার্যক্রমের আওতায় নিন্মআয়ের মানুষের জন্য সামাজিক নিরাপত্তামূলক কার্যক্রম চলমান থাকবে বলে জানিয়েছেন জেলা প্রশাসক প্রতাপ চন্দ্র বিশ্বাস।

তিনি আরও বলেন,খাগড়াছড়িতে এখনও পর্যন্ত করোনা আক্রান্ত কোন রোগীর সন্ধান পাওয়া যায়নি। সর্তকতা ও সচেতন থাকলে আমরা সকলের সহযোগীতায় নিরাপদে থাকতে পারব। সরকারের ঘোষণা মোতাবেক সবাইকে নিজ নিজ অবস্থান থেকে সংকট মোকাবেলায় সহযোগীতা করার আহ্ববান জানান তিনি।

এদিকে,সামাজিক দূরত্ব বজায় রেখে লোকজন যেতে নিত্যপ্রয়োজনী কেনাকাটা করতে পারে সে লক্ষ্যে মাঠে কাজ করছে স্থানীয় প্রশাসন। আজ শনিবার দুপুরে খাগড়াছড়ি বাজারের বিভিন্ন ফার্মেসী,মুদিমালের দোকানের সামনে বৃত্তাকার করে চিহ্ন অঙ্কন করে দেয়া হয়েছে। ক্রেতা ও বিক্রেতাদের নিরাপদ দূরত্ব বজায় রেখে কার্যক্রম পরিচালনা করার অনুরোধ জানানো হয়।

স্বাস্থ্য বিভাগের তথ্য মতে,খাগড়াছড়ি সদর সহ ৮ উপজেলায় ৮০ বেডের আইসোলেশন ওয়ার্ড প্রস্তুত রাখা হয়েছে। এখনও পর্যন্ত কোন স্বাস্থ্য কমপ্লেক্স বা হাসপাতালে আইসোলেশন ওয়ার্ডে কোন রোগী ভর্তি নেই।

আরও পড়ুন

আপনার মন্তব্য লিখুন

আপনার ইমেইল ঠিকানা প্রকাশিত হবে না।