খাগড়াছড়িতে ফের এক স্কুল ছাত্রীকে ধর্ষণ চেষ্টার অভিযোগ

খাগড়াছড়ির দীঘিনালার মেরুং ইউনিয়নের চৌধুরী পাড়া এলাকায় এক কিশোরী(১৫)কে ধর্ষণ চেষ্টার অভিযোগ উঠেছে। কিশোরীকে উদ্ধার করে স্বজনরা বৃহস্পতিবার রাতে খাগড়াছড়ি সদর হাসপাতালে ভর্তি করে। সেই দীঘিনালার মেরুং ইউপির চৌধুরীপাড়া গ্রামের বাসিন্দা এবং স্থানীয় একটি স্কুলের ৭ম শ্রেণীর ছাত্রী।
ভিকটিমের বাবা ললিত চাকমা জানান, বৃহস্পতিবার সন্ধ্যায় তার মেয়ে ছাগল আনতে গেলে স্থানীয় বরপেটা চাকমা(২৪) তাকে জোরপূর্বক ধর্ষণের চেষ্টা করে। ভিকটিমের চিৎকারে স্থানীয়রা এগিয়ে আসলে বরপেটা চাকমা পালিয়ে যায়। স্বজনরা কিশোরীকে উদ্ধার করে খাগড়াছড়ি সদর হাসপাতালে নিয়ে আসে। বরপেটা চাকমা পেশায় ভাড়ায় মোটরসাইকেল চালক।
খাগড়াছড়ি সদর হাসপাতালের চিকিৎসক মোশারফ হোসেন জানান, ভিকটিমের পরিবার ধর্ষণের অভিযোগ করছে। শারীরিক পরীক্ষার রিপোর্ট আসলে বাকীটা জানা যাবে।
দীঘিনালা থানার ওসি আব্দুস সামাদ বলেন, খবর পেয়ে পুলিশ চৌধুরীপাড়ার ঘটনাস্থলের উদ্দেশে গেছে। অভিযুক্ত যুবককে আটকের চেষ্টা চলছে।
উল্লেখ্য, গত ২৮ জুলাই দীঘিনালার নয়মাইল ত্রিপুরা পল্লীতে পঞ্চম শ্রেণী পড়ুয়া এক ত্রিপুরা কিশোরীকে ধর্ষণের পর নৃশংসভাবে হত্যা করে দূর্বৃত্তরা।

আরও পড়ুন
আপনার মন্তব্য লিখুন

আপনার ইমেইল ঠিকানা প্রকাশিত হবে না।