খাগড়াছড়িতে বিজিবি-বিএসএফের সেক্টর কমান্ডার পর্যায়ে সীমান্ত বৈঠক

খাগড়াছড়ির রামগড়ে বর্ডার গার্ড বাংলাদেশ বিজিবি ও ভারতীয় সীমান্তরক্ষী বাহিনী বিএসএফের সেক্টর কমান্ডার পর্যায়ে এক সীমান্ত বৈঠক অনুষ্ঠিত হয়েছে। আজ বুধবার (৪ নভেম্বর) রামগড় পৌরসভার সম্মেলন কক্ষে বৈঠকটি অনুষ্ঠিত হয়।

আজ বুধবার সন্ধ্যায় বৈঠক শেষে বিজিবির পক্ষে নেতৃত্বদানকারী খাগড়াছড়ি সেক্টরের সেক্টর কমান্ডার কর্ণেল মোহাম্মদ জাহাঙ্গীর হোসেন এ প্রতিনিধিকে বলেন, খাগড়াছড়ি ও দক্ষিণ ত্রিপুরা সীমান্তে ভারতের কাঁটাতারের বেড়া নির্মাণের বিষয়সহ চোরাচালান, অবৈধ পারাপার ইত্যাদি বিষয় নিয়ে আলোচনা হয়েছে ।

এক প্রশ্নের উত্তরে তিনি বলেন, ঢাকায় সম্প্রতি দুদেশের ডিজি পর্যায়ে অনুষ্ঠিত বৈঠকের সিদ্ধান্ত অনুযায়ী সীমান্তের দেড়শ গজের মধ্যে কাঁটাতারের বেড়া নির্মাণে জন্য বিএসএফকে বলা হয়েছে। তারা সিদ্ধান্ত অনুসরণ করে এ বেড়া নির্মাণ করছে কি না তা বিজিবি মনিটরিং করবে।

খাগড়াছড়ির সেক্টর কমান্ডার আরও বলেন, ইদানিং সীমান্তের বিভিন্ন এলাকায় চোরাচালান বৃদ্ধি পাওয়ায় এটি প্রতিরোধে দুপক্ষই নজরদারি ও টহল বাড়ানোর ব্যাপারে একমত হয়। দুই পক্ষ একে অপরকে চোরাকারবারীসহ সীমান্ত অপরাধীদের তালিকা সরবরাহেরও সিদ্ধান্ত নেয়া হয়। বৈঠকে রামগড় সাব্রুম সীমান্তের ফেনী নদীর ওপর বাংলাদেশ ভারত মৈত্রী সেতুর নির্মাণ কাজে নিয়োজিতদের বিজিবির নিরাপত্তা আরও বাড়াতে অনুরোধ জানায় তারা।

তিনি বলেন, অত্যন্ত আন্তরিক ও সোহার্দপূর্ণ পরিবেশে বৈঠক অনুষ্ঠিত হয়। বুধবার সকাল ১১টায় শুরু হয়ে মধ্যাহ্ন বিরতির পর সন্ধ্যা অব্দি বৈঠক অনুষ্ঠিত হয়। বৈঠকে ২০ সদস্যের বিজিবি প্রতিনিধি দলে অন্যান্যের মধ্যে গুইমারার সেক্টর কমান্ডার কর্ণেল জি এইচ এম সেলিম, রামগড়স্থ বিজিবির ৪৩ ব্যাটালিয়নের অধিনায়ক লে.কর্ণেল মোহাম্মদ আনোয়ারুল মাযাহারসহ বিভিন্ন ব্যাটালিয়নের অধিনায়কগণ উপস্থিত ছিলেন।

অন্যদিকে, ২০ সদস্যের বিএসএফ প্রতিনিধিদলের নেতৃত্ব দেন ত্রিপুরার উদয়পুর সেক্টরের ডিআইজি জামিল আহমেদ। বৈঠক শুরুর আগে বুধবার সকালে মৈত্রী সেতু এলাকায় বিএসএফ প্রতিনিধিদলকে বাংলাদেশে স্বাগত জানান বিজিবির খাগড়াছড়ি ও গুইমারা সেক্টর কমান্ডারদ্বয়।

আরও পড়ুন
আপনার মন্তব্য লিখুন

আপনার ইমেইল ঠিকানা প্রকাশিত হবে না।