খাগড়াছড়িতে বিদ্যুৎ নেই ২ দিন ধরে

টানা বর্ষণ ও চট্টগ্রাম-খাগড়াছড়ি ৩৩ কেভি’র সঞ্চালন লাইনে গাছের ডালপালা পড়ে ক্ষতিগ্রস্ত হওয়ায় গত দু’দিন ধরে খাগড়াছড়ি জেলা বিদ্যুৎ বিচ্ছিন্ন হয়ে রয়েছে। গত সোমবার সকাল ৮টা থেকে জেলায় বিদ্যুৎ সংযোগ বিচ্ছিন্ন রয়েছে। মঙ্গলবার বিকেল সাড়ে ৩টায় এ রিপোর্ট লেখা পর্যন্ত বিদ্যুৎ সংযোগ বিচ্ছিন্ন ছিল এবং ক্ষতিগ্রস্ত লাইন মেরামতে কাজ চলছিল বলে জানিয়েছেন খাগড়াছড়ি বিদ্যুৎ বিতরণ বিভাগের নির্বাহী প্রকৌশলী আবু জাফর।
রমজান মাসে বিদ্যুৎ না থাকায় সেহরী ও ইফতারে বেঘাত ঘটছে রোযাদারদের। দুই দিন ধরে বিদ্যুৎ না থাকায় অনেক বাসা বাড়িতে সুপেয় পানির পাশাপাশি ব্যবহারের পানির সংকট দেখা দিয়েছে।
খাগড়াছড়ি শহরের মাস্টারপাড়া এলাকার বাসিন্দা আব্দুল মান্নান আকন্দ জানান, গত সোমবার থেকে বিদ্যুৎ নাই, বাসার গৃহস্থলির কাজকর্ম করতে পানি পাওয়া যাচ্ছে না। মঙ্গলবার ভোরে মোমবাতি জ্বালিয়ে সেহেরী খেতে হয়েছে।
মিলনপুর এলাকার বাসিন্দা সুকোমল চাকমা জানান, সোমবার সকাল থেকে যে বিদ্যুৎ গেছে দু’দিনেও আর বিদ্যুৎ পাইনি। বিদ্যুৎ না থাকায় সুপেয় খাবার পানি ও ব্যবহারের পানির সংকট দেখা দিয়েছে।
খাগড়াছড়ি বিদ্যুৎ বিতরণ বিভাগের নির্বাহী প্রকৌশলী আবু জাফর বলেন, সাব স্টেশনের কাজ শেষ না হওয়া পর্যন্ত খাগড়াছড়ি জেলার বিদ্যুৎ সমস্যা সমাধান হচ্ছে না। গত সোমবার থেকে কয়েকটি ইউনিট ক্ষতিগ্রস্ত বিদ্যুৎ লাইন মেরামতে কাজ করছে। সোমবার রাতে লাইন মেরামত শেষ করে বিদ্যুৎ সংযোগ দেয়া হলেও মঙ্গলবার রাতের ঝড়ো বাতাসে বিদ্যুৎ সঞ্চালন লাইন আবারও ক্ষতিগ্রস্ত হয়।
উল্লেখ্য, ২০১৪ সাল থেকে খাগড়াছড়ি সদরের ঠাকুরছড়া এলাকায় ১৩২/৩৩ কেভি লাইনের সাব স্টেশন নির্মাণের কাজ শুরু হয়েছে। চলতি বছরের মধ্যে সাব স্টেশন নির্মাণ কাজ শেষ হবে বলে বিদ্যুৎ বিভাগ সূত্রে জানা গেছে।

আরও পড়ুন
আপনার মন্তব্য লিখুন

আপনার ইমেইল ঠিকানা প্রকাশিত হবে না।