খাগড়াছড়িতে ভাংচুর, লাঠিচার্জের মধ্য দিয়ে হরতাল পালিত

খাগড়াছড়িতে হরতালের সময় এক পিকেটারকে আটক করছে পুলিশ
খাগড়াছড়ি জেলার মহালছড়ি উপজেলার ভাড়ায় মোটরসাইকেল চালক সাদিকুল ইসলামের হত্যাকারীদের গ্রেফতার ও পরিবারকে ক্ষতিপূরণ দেয়ার দাবীতে পার্বত্য বাঙালী ছাত্র পরিষদ(পিবিসিপি) সহ সমমনা সংগঠনের ডাকা সকাল সন্ধ্যা হরতাল বিচ্ছিন্ন কিছু ঘটনার মধ্য দিয়ে খাগড়াছড়িতে পালিত হয়েছে।
বুধবার সকালে জেলা শহরের মাস্টারপাড়া মুখ এলাকায় হরতাল সমর্থকদের মিছিল থেকে একটি ট্রাকের কাঁচ ভাংচুর করা হয়। এসময় পুলিশ পিকেটারদের ছত্রভঙ্গ করতে লাঠিচার্জ করে। এসময় তিনজনকে আটক করা হলেও পরবর্তীতে তাদের ছেঁড়ে দেয়া হয়। হরতালের আওতামুক্ত যানবাহন ও দোকানপাট ছাড়া সব প্রকার যানবাহন ও দোকানপাট বন্ধ ছিল। গুরুত্বপূর্ণ এলাকাগুলোতে পুলিশের সতর্ক অবস্থানে ছিল।
পিবিসিপি’র খাগড়াছড়ি শাখার সাধারণ সম্পাদক এসএম মাসুম রানা বলেন, শান্তিপূর্ণ পিকেটিংয়ে পুলিশের লাঠিচার্জে সভাপতি মাঈন উদ্দিন, কর্মী নজরুল ইসলাম ও কর্মী মো: আকিব আহত হয়েছে। প্রশাসন যদি সাদিকুল ইসলামের হত্যাকারীদের অবিলম্বে গ্রেফতার করতে ব্যর্থ হয় তাহলে আরো কঠোর কর্মসূচি ঘোষণা করা হবে।
খাগড়াছড়িতে হরতালের সময় পিকেটাররা ট্রাক ভাংচুর করে
অন্যদিকে খাগড়াছড়ির পুলিশ সুপার আলী আহমদ খান জানান, পিবিসিপি’র ডাকা সকাল-সন্ধ্যা হরতাল শান্তিপূর্ণ ভাবে পালিত হয়েছে।
প্রসঙ্গত, গত ১০ এপ্রিল মহালছড়ি থেকে অপহৃত হন ভাড়ায় মোটরসাইকেল চালক সাদিকুল ইসলাম। চারদিন পর ১৪ এপ্রিল বিকেলে রাঙামাটির ঘিলাছড়ি থেকে মাটি চাপা দেয়া অবস্থায় তাঁর লাশ উদ্ধার করা হয়। হত্যাকারীদের গ্রেফতার ও ক্ষতিগ্রস্থ পরিবারকে ক্ষতিপূরণের দাবীতে গত ১৬ এপ্রিল রাঙামাটি ও খাগড়াছড়ি জেলায় সকাল সন্ধ্যা হরতালের ডাক দেয় পিবিসিপি সহ সমমনা একাধিক সংগঠন।

আরও পড়ুন
আপনার মন্তব্য লিখুন

আপনার ইমেইল ঠিকানা প্রকাশিত হবে না।