খাগড়াছড়িতে সেলাই প্রশিক্ষণ কর্মসূচি শুরু

খাগড়াছড়িতে সেলাই প্রশিক্ষণ কর্মসূচি শুরু
খাগড়াছড়ি জেলার দু:স্থ ও দরিদ্র নারীদের আত্ম-কর্মসংস্থানের লক্ষে ৯টি উপজেলায় ৬ মাস ব্যাপি সেলাই কর্মসূচি চালু করেছে খাগড়াছড়ি পার্বত্য জেলা পরিষদ। এই কর্মসূচির আওতায় জেলার কয়েক’শ নারীকে নিজস্ব কর্মদক্ষতায় অভিজ্ঞ এবং স্বাবলম্বী করতে দীর্ঘ ও স্বল্প মেয়াদী প্রশিক্ষনের পাশাপাশি পূঁজি গঠনে সহায়তা করা হবে।
শনিবার বিকেলে পার্বত্য জেলা পরিষদের সদস্য ও নারীনেত্রী শতরুপা চাকমা জেলা শহরের খাগড়াপুর এলাকায় ২০ জন নারীকে নিয়ে ৬ মাস ব্যাপি প্রশিক্ষণ কর্মসূচি’র আনুষ্ঠানিক উদ্বোধনের মধ্য দিয়ে এই লক্ষ্যমাত্রার সূচনা করেন। তিনি জানান, বর্তমান সরকার নারীর ক্ষমতায়নে বদ্ধ পরিকর। পুরুষের সাথে পাল্লা দিয়ে সমাজের ও দেশের সার্বিক উন্নয়নে ভূমিকা রাখতে নারীর কর্মদক্ষতার বর্হিপ্রকাশ এবং সৃজনশীল মেধার প্রয়োগের পথ প্রশস্ত করতে আগ্রহী। তাই, পার্বত্য চট্টগ্রামের আদিবাসী ও বাঙালি নারীদের জন্য সরকারের বিশেষ দৃষ্টি রয়েছে।
কর্মসূচি শুরুও সময় তিনি বেকার ও দু:স্থ নারীদের উদ্দেশ্যে বলেন, সমাজে প্রতিটি নারীর মেধা ও মনন প্রকাশের পথ সৃষ্টি করার মাধ্যমে একটি সমৃদ্ধ ও সমতা ভিত্তিক সমাজ বিনির্মাণে বর্তমান সরকার প্রধানের বিশেষ দৃষ্টি রয়েছে। সকলে মিলে যদি সম্মিলিত ভাবে এগিয়ে আসতে পারি, তাইলে দেশ এগোবে উন্নত বিশ্বের সাথে পাল্লা দিয়ে।
এসময় তাঁর সাথে জেলার বিশিষ্ট নারীনেত্রী-খাগড়াপুর মহিলা কল্যাণ সমিতি (কেএমকেএস)-এর সভাপতি শেফালিকা ত্রিপুরা, নারী উদ্যোক্তা প্রতিভা ত্রিপুরা, উন্নয়ন সংগঠক শাপলা ত্রিপুরা, খাগড়াছড়ি সাংবাদিক ইউনিয়ন (কেইউজে)-এর সহ-সভাপতি সৈকত দেওয়ান, সমাজকর্মী লিচন ভট্টাচার্য্য রানা এবং সংবাদকর্মী প্রদীপ চৌধুরী উপস্থিত ছিলেন।

আরও পড়ুন
আপনার মন্তব্য লিখুন

আপনার ইমেইল ঠিকানা প্রকাশিত হবে না।