খাগড়াছড়িতে হিল উইমেন্স ফেডারেশনের ৩ কর্মীকে কারাগারে প্রেরণ

ইউপিডিএফ সমর্থিত হিল উইমেন্স ফেডারেশনের(এইচডব্লিউএফ) ৩ কর্মীকে জেল হাজতে প্রেরণ করেছে খাগড়াছড়ির অতিরিক্ত জুডিশিয়ার ম্যাজিস্ট্রেট রোকেয়া বেগম। বৃহস্পতিবার আদালত এইচডব্লিউএফ’র কর্মী সোনাবি চাকমা, পিপি চাকমা ও মিকিনা চাকমার জামিন আবেদন মঞ্জুর না করে তাদের কারাগারে প্রেরণ এবং আটক বাকী ৫ জনকে জামিন প্রদান করেন।
বুধবার(৭ জুন) দুপুরে খাগড়াছড়ি সদরের স্বর্ণিভর এলাকায় এইচডবিøউএফ নেত্রী কল্পনা চাকমার হত্যাকাÐের সুষ্ঠু বিচারের দাবিতে বিক্ষোভ মিছিল বের করার চেষ্টা করে সংগঠনটি। এসময় পুলিশ ও বিজিবি’র সদস্যরা মিছিলে বাধা দিলে তাদের সাথে ত্রিমুখী সংঘর্ষের ঘটনা ঘটে। এতে ৩ বিজিবি সদস্যসহ ১০ জন আহত হয়। সংঘর্ষের পরপর পুলিশ ঘটনাস্থল থেকে ৮ জনকে আটক করে। আটককৃতদের মধ্যে বৃহস্পতিবার ৩ জনকে কারাগারে প্রেরণ করে ৫ জনকে জামিন দেয় আদালত।
বিজিবি সদস্যদের ওপর হামলা ও সরকারি কাজে বাধা প্রদানের অভিযোগ বুধবার রাতেই খাগড়াছড়ি সদর থানায় ৩২ বিজিবি’র নায়েক সুবেদার আব্দুল হক বাদি হয়ে এইচডবিøউএফ খাগড়াছড়ি শাখার সভানেত্রী দ্বিতীয়া চাকমা, ইউপিডিএফ সংগঠক মিঠুন চাকমা ও পাহাড়ী ছাত্র পরিষদের কেন্দ্রীয় কমিটির সাধারণ সম্পাদক বিপুল চাকমাসহ ২৬ জনের নাম উল্লেখ এবং অজ্ঞাত ৪০ জনকে আসামী করে মামলা করেন।
বুধবার খাগড়াছড়ির স্বর্ণিভরে নেতাকর্মীদের ওপর হামলা ও আটকের প্রতিবাদে খাগড়াছড়ি শহরে তাৎক্ষণিক সড়ক অবরোধের ডাক দেয় ইউপিডিএফ সমর্থিত পাহাড়ী ছাত্র পরিষদ(পিসিপি)। পিপিসি’র বিক্ষুব্ধ নেতাকর্মীরা খাগড়াছড়ির রামগড়, মানিকছড়ি, পানছড়ি উপজেলা ও জেলা সদরের ২০টি পরিবহন ভাংচুর করেন।

আরও পড়ুন
আপনার মন্তব্য লিখুন

আপনার ইমেইল ঠিকানা প্রকাশিত হবে না।