খাগড়াছড়িতে ১টি কেন্দ্রে ভোট বাতিল, আরেকটি স্থগিত

খাগড়াছড়িতে পানছড়ি উপজেলার সদর ইউনিয়নের একটি কেন্দ্রে ব্যালট ছিনতাইয়ের ঘটনা ঘটেছে। আজ দুপুরে ৮নং ওয়ার্ডের পাইলট ফার্ম সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয় কেন্দ্রে এ ঘটনা ঘটে। এ সময় সংঘর্ষে সংরক্ষিত এক নারী মেম্বার প্রার্থী ও স্বতন্ত্র চেয়ারম্যান প্রার্থীর মহিলা এজেন্ট আহত হয়েছেন। এর জেরে ঐ কেন্দ্রের ভোট স্থগিত করা হয়।

পানছড়ির ৫ ইউনিয়ন পরিষদ নির্বাচনের রিটার্নিং অফিসার রিকল চাকমা বিষয়টি নিশ্চিত করেন। এছাড়া জাল ভোটের অভিযোগে পানছড়ির সদর ইউনিয়ন পরিষদের পানছড়ি বাজার মডেল উচ্চ বিদ্যালয় কেন্দ্রের ভোট বাতিল করা হয়েছে।

রিটার্নিং অফিসার রিকল চাকমা বলেন, ৩টি ব্যালট বই ছিনতাই হওয়ার বিষয় উল্লেখ করে প্রিজাইডিং অফিসার আবেদন করেন। এর প্রেক্ষিতে কেন্দ্রের ভোটগ্রহণ স্থগিত করা হয়েছে। এর আগে ঐ কেন্দ্রটি দখলের অভিযোগে ধাওয়া পাল্টা ধাওয়ার ঘটনা ঘটে। যদিও ব্যালট ছিনতাইয়ের বিষয়টি প্রথমে অস্বীকার করেন কেন্দ্রের প্রিজাইডিং কর্মকর্তা সুভাষ চৌধুরী।

সংরক্ষিত মেম্বার প্রার্থী মন্দিরা চাকমা অভিযোগ করে বলেন, সাড়ে ১২টার দিকে ৮ নং ওয়ার্ডের মেম্বার প্রার্থী মো. আমিরুল বাশারের সমর্থকরা পাইলট ফার্ম সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ের ১ নং বুথে ঢুকে চেয়ারম্যান, সাধারণ ও সংরক্ষিত মেম্বার প্রার্থীর প্রতীক সম্বলিত ব্যালট পেপারের তিনটি বই ছিনিয়ে নিয়ে যায়। প্রতিবাদ জানালে তাকে ও এজেন্টদের মারধর করা হয় বলেও অভিযোগ করেন তিনি। বিষয়টি তিনি রিটার্নিং অফিসারকে জানিয়েছেন।

এদিকে, ৮নং পাইলট ফার্ম সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয় ভোটকেন্দ্রটিতে ভোট বাতিলের দাবিতে বিক্ষোভ করেছে অপর এক সাধারণ মেম্বার প্রার্থীর সমর্থকরা। কেন্দ্রটিতে ভোটার সংখ্যা ২৮৪৪ জন।

আরও পড়ুন
আপনার মন্তব্য লিখুন

আপনার ইমেইল ঠিকানা প্রকাশিত হবে না।