গরীবের ঘরে কষ্টের যেন শেষ নেই !

“গরীবের ঘরে কষ্টের যেন শেষ নেই,সম্প্রতি ভারী বৃষ্টি ও প্রবল বর্ষনে একদিকে বসত-বাড়ি বন্যায় তলিয়ে গিয়ে বেশ ক্ষয়ক্ষতি হয়েছে,আর এর রেশ কাটতে না কাটতে আমার পরিবারের এক মাত্র সম্বল একটি গৃহপালিত গরু বৈদ্যুতিক শর্ট সার্কিটে মারা গেল” কথাটি বললেন বান্দরবানে থানচি উপজেলা সদরের সাঙ্গু সেতুর নিচে বসবাসরত ভূমিহীন পরিবার প্রেম কুমার বিশ্বাস।

তিনি জানান, তাদের সংসারের এক মাত্র সম্বল ছিলো একটি গরু। যেটির আয় থেকে চলতো পুরো পরিবার। আজ রোববার বিকালে ঘাস খেতে গিয়ে থানচি কালির মন্দির সামনে একটি খুটির নিচে বৈদ্যুতিক তারের শর্ট সার্কিটে সেই শেষ সম্বলটিই মারা গেল।

থানচি কালি মন্দির পরিচালনা কমিটির সাবেক সভাপতি পলাশ কুমার মল্লিক জানান, কালি মন্দিরে সামনে বিদ্যুৎতে খুঁটির নিচে অযত্ন অবহেলায় পড়ে রয়েছে বিদ্যুৎতের তার। তখন ঐ গরুটি ঘাস খেতে গেলে বিদ্যুৎতের শট শার্কিটে ঘটনাস্থলে মারা যায়। পরে গরুর মালিক প্রেম কুমার বিশ্বাসকে মৃত গরুটি বুঝিয়ে দেয়া হয় ।

আরও পড়ুন

আপনার মন্তব্য লিখুন

আপনার ইমেইল ঠিকানা প্রকাশিত হবে না।