গুইমারায় ছাত্রদল নেতার লাশ উদ্ধার, এলাকায় উত্তেজনা

খাগড়াছড়ির গুইমারা উপজেলার সিন্দুকছড়ি থেকে ছাত্রদল নেতার হাত পা বাঁধা লাশ উদ্ধার করেছে পুলিশ। মঙ্গলবার বেলা ১১টায় সিন্দুকছড়ির তৈকর্মা পাড়া এলাকার রাস্তার পাশের ধানক্ষেত থেকে গুইমারা ইউনিয়ন ছাত্রদলের সহ সভাপতি রবিউল আউয়ালের লাশ উদ্ধার করে পুলিশ।
স্থানীয় সূত্রে জানা গেছে, রবিউল আউয়াল গুইমারা উপজেলার হাজিপাড়া এলাকার আব্দুল মান্নানের ছেলে। লাশ উদ্ধারের পর থেকে গুইমারা ও জালিয়া পাড়া এলাকায় বিক্ষোভ শুরু করেছে এলাকাবাসী। ২৪ ঘন্টার মধ্যে আসামীদের সনাক্ত করে গ্রেফতারের আল্টিমেটাম দিয়েছে এলাকাবাসী।
নিহতের বাবা আব্দুল মান্নান জানান, সোমবার দুপুরে বাড়ি থেকে বের হয় রবিউল, রাতে সে বাড়ি না ফেরায় মোবাইল ফোনে কল করা হলে বন্ধ পাওয়া যায়।
গুইমারা থানার অফিসার ইনচার্জ(ওসি) জোবাইরুল হক জানান, মঙ্গলবার সকালে স্থানীয় লোকজন তৈকর্মা পাড়া এলাকায় রাস্তার পাশে মোটরসাইকেল পড়ে থাকতে দেখে খোজাখুজিঁ করে রবিউলের লাশ দেখতে পেয়ে পুলিশকে খবর দিলে পুলিশ হাত পা বাঁধা অবস্থায় লাশ উদ্ধার করে। তার মাথায় আঘাতের চিহ্ন রয়েছে। নিহত রবিউল ভাড়ায় মোটরসাইকেল চালক ছিল।
রবিউলের লাশ পাওয়া খবর ছড়িয়ে পড়ার পর খাগড়াছড়ি শহরে বিক্ষোভ মিছিল করেছে পার্বত্য বাঙালী ছাত্র পরিষদ(পিবিসিপি)। হত্যাকান্ডের জন্য পাহাড়ের অনিবন্ধিত আঞ্চলিক সংগঠন ইউপিডিএফ’কে দায়ী করেছে সংগঠনটি।

আরও পড়ুন
আপনার মন্তব্য লিখুন

আপনার ইমেইল ঠিকানা প্রকাশিত হবে না।