গুজব একটি পরিকল্পিত ষড়যন্ত্র : রাঙ্গামাটি পুলিশ সুপার

রাঙ্গামাটিতে সাংবাদিকদের সাথে পুলিশ সুপারের সম্মেলন কক্ষে প্রেস ব্রিফিং
গুজবে কান না দিয়ে ও আইন হাতে তুলে না নিতে জনগনকে অনুরোধ জানিয়ে আজ বৃহস্পতিবার দুপুরে রাঙ্গামাটিতে সাংবাদিকদের সাথে পুলিশ সুপারের সম্মেলন কক্ষে প্রেস ব্রিফিং করেছেন পুলিশ সুপার আলমগীর কবির। এ সময় জেলা পুলিশের উর্ধ্বতন কর্মকর্তা ছাড়াও স্থানীয় প্রিন্ট ও ইলেক্ট্রনিক মিডিয়ার সাংবাদিকরা উপস্থিত ছিলেন।
পুলিশ সুপার আলমগীর কবির বলেন, গুজব একটি পরিকল্পিত ষড়যন্ত্র। সরকারের উন্নয়ন কর্মকান্ডকে বাধাগ্রস্থ করার জন্য ষড়যন্ত্রকারীরা গুজবকে হাতিয়ার হিসেবে ব্যবহার করছে। তাই গুজবে কান দেবেন না এবং গুজব ছড়ানো ব্যক্তিদের আইনের আওতায় আনার জন্য সকলের এগিয়ে আসা দরকার। গুজব কারা ছড়াচ্ছে তা বের করে দ্রæতই আইনের আওতায় আনবে পুলিশ। আইন যেন কেউ হাতে তুলে না নেয়, কারো গায়ে হাত দেওয়া বা মেরে ফেলার অধিকার অন্য কারো নেই।
তিনি আরো বলেন, সংবাদপত্র হল সমাজের দর্পণ। বস্তনিষ্ঠ সংবাদ পরিবেশনের মাধ্যমে সমাজে সৃষ্ট গুজব প্রতিরোধে সংবাদপত্র অগ্রণী ভূমিকা পালন করে। ছেলে ধরা গুজব প্রতিরোধে পুলিশের পাশাপাশি সাংবাদিকরা তাদের লেখনীর মাধ্যমে জনগনকে সচেতন করে তুলতে সাংবাদিকদের প্রতি আহবান জানান তিনি।
এসপি জানান, পদ্মা সেতুর জন্য মানুষের মাথা ও রক্ত লাগবে’ এ গুজবে ছেলে ধরা সন্দেহ থেকে গণপিটুনি রোধে সামাজিক সচেতনতা সৃষ্টির লক্ষ্যে বাংলাদেশ পুলিশ (২৫ জুলাই থেকে ৩০ জুলাই ২০১৯ খ্রিঃ) গুজব বিরোধী সপ্তাহ ঘোষণা করেছে। এ উপলক্ষে জেলা পুলিশ রাঙ্গামাটি স্কুল-কলেজ, শিক্ষা-প্রতিষ্ঠান, ধর্মীয় উপসনালয়, জনসমাগম স্থল, পাড়া-মহল্লায় ব্যাপক সচেতনতামূলক কার্যক্রম পরিচালনা করছে। পরে পুলিশ সুপার সাংবাদিকদের মাধ্যেমে পুলিশের পাশাপাশি মসজিদের ইমাম, রাজনৈতিক নেতৃবৃন্দ এবং সর্বস্তরের জনসাধারণকে গুজব বিরোধী সচেতনতা কার্যক্রমে সক্রিয় অংশগ্রহনের জন্য আহবান জানান ।

আরও পড়ুন

আপনার মন্তব্য লিখুন

আপনার ইমেইল ঠিকানা প্রকাশিত হবে না।