চন্দ্রঘোনা ইউনিয়নে ১০৮৮ জন পেলো ত্রাণ সহায়তা

করোনা ভাইরাস সংক্রমণ রোধে কর্মহীন হয়ে পড়েছে খেটে খাওয়া মানুষ। এই অবস্থায় রাঙামাটির কাপ্তাই উপজেলার ১ নং চন্দ্রঘোনা ইউনিয়ন পরিষদের আওতায় সর্বমোট ১০৮৮ টি দরিদ্র পেল সরকারি ত্রান সহায়তা। এছাড়া ব্যক্তি উদ্যোগে ৭০ হাজার টাকা বন্টন করা হয়েছে এই ইউনিয়ন এর দরিদ্র জনগোষ্ঠীর মাঝে।

১ নং চন্দ্রঘোনা ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান আনোয়ারুল ইসলাম চৌধুরী বেবী জানান, এই ইউনিয়নে সরকারের ত্রাণ মন্ত্রণালয় হতে প্রাপ্ত সাড়ে ৬ টন চাল এবং ডাল, তেল, লবনসহ নিত্যপ্রয়োজনীয় দ্রব্য ৯৩৮ টি পরিবারের মাঝে বিতরণ করা হয়েছে।

এছাড়া রাঙামাটি পার্বত্য জেলা পরিষদ হতে ৫০ টি পরিবার এবং কাপ্তাই উপজেলা পরিষদ হতে ১০০ জন চালক সহ সর্বমোট ১০৮৮ টি পরিবারকে ত্রাণ সহায়তা প্রদান করা হয়েছে। এছাড়া ব্যক্তিগত উদ্যোগে কেপিএম এর সাবেক কর্মকর্তা এম আই চৌধুরী ৫০ হাজার নগদ টাকা এবং তাঁর পুত্র আমিনুল ইসলাম নগদ ২০ হাজার টাকা প্রদান করেছেন দরিদ্র জনগোষ্ঠীর জন্য।

উল্ল্যেখ যে, এম আই চৌধুরী হলেন ১ নং চন্দ্রঘোনা ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান আনোয়ারুল ইসলাম চৌধুরীর পিতা এবং আমিনুল ইসলাম হলেন তাঁর বড় ভাই।

আরও পড়ুন
Loading...