চাল কিনতে সামর্থহীনদের পাশে রাঙামাটির আওয়ামী লীগ নেতা মুছা মাতব্বর

করোনায় ঘরব‌ন্দি মানুষ যাতে অনাহারে না থাকে সেজন্য সরকার খোলা বাজারে ১০ টাকা কেজিতে চাল বি‌ক্রি শুরু করেছে। কিন্তু আয় রোজগার বন্ধ থাকায় ১০ টাকায় চাল কিনতেও পারছেন না অনেকে। এই খবরে মানবতার দূত হিসাবে এসে দা‌ঁড়ি‌য়ে‌ছেন রাঙামা‌টি জেলা প‌রিষদ সদস্য ও জেলা আওয়ামী লীগের সাধারন সম্পাদক হাজী মোঃ মুছা মাতব্বর।

গত ‌রোববার মুছা মাতব্বরের কল্যানে রাঙামা‌টি শহরের রিজার্ভ বাজারে প্রায় ৮ শতা‌ধিক আয় রোজগারহীন দুঃস্থ মানুষ কিনতে পেরেছেন ১০ টাকা দরের চাল। প্রতিজনে কিনেছেন ৫ কে‌জি করে চাল। প‌রিবার প‌রিজন নিয়ে অর্থাভাবে অনাহারের সংকট থে‌কে মু‌ক্তি পেয়ে যেন নতুন জীবন পেল এসব মানুষ। মু‌খে হা‌সি,অন্তরে স্ব‌স্থি নিয়ে তারা ব‌ললেন, মুছা মাতব্ব‌রের মত বিত্তবানরা এগিয়ে আসলে করোনা প্রাদুর্ভাব ও খাবার সংকট কোনটাই থাক‌বে না।

এ প্রসঙ্গে হাজী ‌মোঃ মুছা মাতব্বর জানান, এক‌টি সংকটময় মুহুর্ত পার কর‌ছি আমরা। ১০ টাকায় চাল কিনতে পারার মর্মটাও বুঝতে হবে। এ সংকটময় মুহুর্তে আয় রোজগার হীন মানুষগু‌লো যা‌তে অনাহারে না থাকে সেজন্য সমাজের বিত্তবানদের এ‌গি‌য়ে আসতে হবে।

আরও পড়ুন

আপনার মন্তব্য লিখুন

আপনার ইমেইল ঠিকানা প্রকাশিত হবে না।