চিকিৎসার জন্য সাজেক থেকে হেলিকপ্টারে নেওয়া হলো জুমচাষী যতীনকে

রাঙামাটির বাঘাইছড়ি উপজেলার সাজেক ইউনিয়নের জপুই পাড়া থেকে যতীন ত্রিপুরা (৩৩) নামে আহত এক জুমচাষীকে উন্নত চিকিৎসা সেবা প্রদানের জন্য হেলিকপ্টার যোগে চট্টগ্রাম নিয়ে আসা হয়েছে।

সেনাবাহিনী ও বিজিবির সহায়তায় বিমান বাহিনীর আজ রোববার (০৩ মে) বিকাল সাড়ে ৪ টায় তাকে নিয়ে হাসপাতালে নেওয়া হয়।

গত ২৯ এপ্রিল (বুধবার) রাঙামাটি জেলার সাজেক ইউনিয়নের জপুই এলাকাতে জুম চাষের সময় উঁচু পাহাড় থেকে পড়ে নিচে থাকা বাঁশের আঘাতে মারাত্মকভাবে জখম হন যতীন ত্রিপুরা। দূর্গম এলাকা হওয়ায় সেখানে চিকিৎসা সুবিধা খুবই অপ্রতুল।

প্রথমে আহত যতীন ত্রিপুরাকে নিকটতম জপুই বিওপিতে আনা হলে বিজিবি ক্যাম্প কর্তৃক তাকে প্রাথমিক চিকিৎসা প্রদান করা হয়। কিন্তু আঘাতের মাত্রা বিবেচনা করে তাকে উন্নত চিকিৎসার জন্য চট্টগ্রামে নেয়া প্রয়োজন বলে বিজিবি কর্তৃক বিষয়টি খাগড়ছড়ি সেনা রিজিয়নকে জানানো হয়।

বিষয়টি মানবিক দৃষ্টিকোণ থেকে বিবেচনায় নিয়ে ২৪ পদাতিক ডিভিশনের জিওসি মেজর জেনারেল এস এম মতিউর রহমান তাকে দ্রুত হেলিকপ্টারের মাধ্যমে চট্টগ্রামে স্থানান্তর করার নির্দেশ প্রদান করেন।

পরে সেনাবাহিনীর তত্বাবধানে বাংলাদেশ বিমান বাহিনী জহুর ঘাঁটি’র একটি বিশেষ হেলিকপ্টারে করে যতীন ত্রিপুরাকে প্রথমে চট্টগ্রাম সেনানিবাসে নিয়ে আসা হয় এবং পরবর্তীতে সেখান থেকে উন্নত চিকিৎসার জন্য তাকে চট্টগ্রাম মেডিকেল কলেজ ও হাসপাতালে নিয়ে যাওয়া হয়।

আরও পড়ুন

আপনার মন্তব্য লিখুন

আপনার ইমেইল ঠিকানা প্রকাশিত হবে না।