জলে ভাসানো হলো বৈসাবি’র ফুল

নদীতে ফুল ভাসিয়ে দিচ্ছে বান্দরবানে চাকমা-তঞ্চঙ্গ্যা সম্প্রদায়
বর্ণাঢ্য শোভাযাত্রা আর নদীতে ফুল ভাসিয়ে বান্দরবানে চাকমা-তঞ্চঙ্গ্যা সম্প্রদায়ের তিন দিনের বৈসাবি উৎসব শুরু হয়েছে। বুধবার সকালে সদর উপজেলা বাঘমারা এলাকায় চাকমা এবং তঞ্চঙ্গ্যা সম্প্রদায়ের তরুণ-তরুণী ও বিভিন্ন বয়সী লোকজন তাদের ঐতিহ্যবাহী পোষাকে সজ্জিত হয়ে শোভাযাত্রায় অংশ নেন। শোভাযাত্রাটি বাঘমারা বাজারের বিভিন্ন স্থান প্রদক্ষিণ শেষে বাঘমারা খালে এসে শেষ হয়।
পরে খালে ফুল ভাসিয়ে পুরানো বছরকে বিদায় জানিয়ে আর নতুন বছরকে বরণ করে নেয় চাকমা-তঞ্চঙ্গ্যা সম্প্রদায়ের তরুণ-তরুনীরা। এসময় নদীতে ফুল ভাসিয়ে পুরাতনকে বিদায় আর নতুন শুভ সুচনার জন্য প্রার্থনা করে সকলে। মারমা ,চাকমা-তঞ্চঙ্গ্যাসহ পাহাড়ী জনগোষ্ঠি সম্প্রদায়ের বৈসাবি উৎসবকে ঘিরে পার্বত্য জেলায় উৎসবের আমেজ সৃষ্টি হয়েছে সর্বত্র।
নদীতে ফুল ভাসায় আদিবাসী তরুণীরা
প্রসঙ্গত, চাকমাদের ভাষায় এ উৎসবকে বিঝু,ত্রিপুরাদের ভাষায় বৈসুক এবং মারমাদের ভাষায় সাংগ্রাই এবং তংচঙ্গ্যাদের ভাষায় বিসু এবং অহমিয়াদের ভাষায় বিহু নামে আখ্যায়িত করা হয়। তিন সম্প্রদায়ের প্রাণের এই উৎসবের নামের আদ্যক্ষর নিয়েই পাহাড়ের আদিবাসীরা এই উৎসবকে বলে ‘বৈসাবি’ উৎসব।

আরও পড়ুন
আপনার মন্তব্য লিখুন

আপনার ইমেইল ঠিকানা প্রকাশিত হবে না।