তিন পার্বত্য জেলায় গত দুই মাসে বজ্রপাতে প্রাণ হারিয়েছে অন্তত ৪ জন

বান্দরবান, রাঙামাটি ও খাগড়াছড়ি তিন পার্বত্য জেলায় চলতি বর্ষা মৌসুমে বজ্রপাতে প্রান হারাচ্ছে মানুষ। গত ২ মাসে তিন পার্বত্য জেলায় বজ্রপাতে প্রাণ হারিয়েছে অন্তত ৪ জন, আহত হয়েছে কয়েকজন।

পাহাড়বার্তা’র গবেষণা সেল এর তথ্য মতে, খাগড়াছড়ি পার্বত্য জেলায় গত ৩ জুন বজ্রপাতে ২ ব্যক্তির মৃত্যু হয়েছে। একই দিনে পৃথক দুটি ঘটনায় তাদের মৃত্যু হয়। এসময় দুটি গরুও বজ্রপাতে মারা যায়। নিহতরা হলেন, খাগড়াছড়ির জেলা সদরের ভূয়াছড়ি এলাকার বাসিন্দা রমজান আলী (৫২) ও মাটিরাঙ্গার গুমতি ইউনিয়নের বাসিন্দা আদম আলী (৪০)।

আরো জানা গেছে, একই মাসের ৬ তারিখে বান্দরবান সদর উপজেলা রাজবিলা ইউনিয়নের ৪ নং ওয়ার্ডের মুসলিম পাড়ার বাসিন্দা মো: আবুল বশর (৬৫) নামে আরো একজন ব্যক্তি বজ্রপাতে মারা যান।

জুলাই মাসের ২৭ তারিখে অপর পার্বত্য জেলা রাঙামাটির লংগদু উপজেলায় আটারকছড়া ইউনিয়নে ৭ নং ওয়ার্ডের নোয়াপাড়ার বাসিন্দা আব্দুল রহিমের স্ত্রী দুলু বেগম(৪৫) নামে এক মহিলার মৃত্যু হয়। এই সময় তার দুটি গরুও মারা যায়।

এদিকে বজ্রপাতের ক্ষয়ক্ষতি ঠেকানোর লক্ষ্যে দেশবাসীকে আগাম সতর্কবার্তা দিতে দেশের ৮টি স্থানে পরীক্ষামূলক ভাবে বজ্রপাত চিহ্নিতকরণ যন্ত্র বা লাইটনিং ডিটেকটিভ সেন্সর বসিয়েছে দুর্যোগ ব্যবস্থাপনা ও ত্রাণ মন্ত্রণালয়। ঢাকার আবহাওয়া অধিদপ্তরের প্রধান কার্যালয় ছাড়াও ময়মনসিংহ, সিলেট, পঞ্চগড়, নওগাঁ, খুলনা পটুয়াখালী এবং চট্টগ্রামে এই সেন্সর বসানো হয়েছে, তবে তিন পার্বত্য জেলার কোন জেলায় বজ্রপাত চিহ্নিতকরণ যন্ত্র বা লাইটনিং ডিটেকটিভ সেন্সর বসানোর উদ্দ্যেগ দেখা যায়নি ।

আরও পড়ুন

আপনার মন্তব্য লিখুন

আপনার ইমেইল ঠিকানা প্রকাশিত হবে না।