থানচি বাজারে সড়কে রড উঠে ঝুঁকিপূর্ন যানচলাচল

NewsDetails_01

বান্দরবানে থানচি উপজেলা সদরের একটি মাত্র বাজারের অভ্যন্তরীন জনগুরুত্বপূর্ন সড়কের রড উঠে ভারী ও হালকা যানবাহন এবং জন সাধারনের চলাচলে ঝুঁকিপূর্ন হয়ে উঠেছে। সড়কের বিভিন্ন স্থানে গর্ত, ময়লা অবর্জনা স্তুপের দুর্গন্ধ ছড়িয়ে পরিবেশের উপর প্রভাব ফেলছে। সড়কে চলাচলকারী বাজারগামীদের ভৌগান্তি চরম পৌছেছে। বাজারের মানুষ গত ৪ বছরে সংস্কারে দাবী জানালে ও এখন ও কোন প্রকার সংস্কারে উদ্যোগ মিলছে না।

জানা যায়, স্থানীয় সরকার প্রকৌশ অধিদপ্তর (এলজিইডি) অর্থায়নের ২০১৭-১৮ সালে দুই ধাপে প্রায় ৮০ লক্ষ টাকার ব্যয়ের থানচি বাজারে প্রবেশ পথ হতে বাজার ঘুরে অভ্যন্তরীন সড়কের আর সিসি ঢালাই (মিনি কার্পেটিং) নির্মান কাজ বাস্তবায়ন করা হয়েছে।

২০২০ সালের ২৭ এপ্রিল থানচি বাজারের ভয়াবহ অগ্নিকান্ডে প্রায় ২২০টি ছোট বড় ক্ষুদ্র ব্যবসায়ীদের ব্যবসায়িক দোকান ঘর পুড়ে ছাই হয়ে যায়। অগ্নিকান্ডে পরবর্তীতে উপজেলা প্রশাসন ও বাজার ব্যবসায়ীদের সমন্বয়ে ঔ সময় নতুন দোকান ঘরগুলিকে ভয়াবহ অগ্নিকান্ড ও যে কোন দুর্যোগ দুর্ঘটনা মোকাবেলায় প্রতিটি দোকানঘর নির্মানে আধাপাকা, পাকাঘর নির্মানের তাগিদ দেয়া হলে বাজারে অনেক ইট, সিমেন্ট, রড, মালামালের পরিবহনের ভারী যানবাহন প্রবেশ করেন। মালামাল পরিবহন ও ভারী যানবাহন চলাচলের কারনে বাজারের অভ্যন্তরীন সড়কের জরাজীর্ন বিভিন্ন স্থানের গর্ত ময়লা অবর্জনা স্তুপ ও সড়কের উপর রড উঠে চলাচলের উপর ঝুঁকিপূর্ন সৃস্টি হয়।

একই অর্থবছরের উপজেলা প্রশাসন/ জনপ্রতিনিধিরা স্থানীয় বাজার ক্ষুদ্র ব্যবসায়ীদের প্রতিশ্রুতি দিয়ে আসছে শ্রীগরই জনগুরুত্ব পূর্ন সড়কটি বেহাল অবস্থা হতে সংস্কারে ব্যবস্থা গ্রহন করা হবে। কিন্তু চারটি বছর অতিবাহিত হলো এখন ও সংস্কার বা নির্মান করা হয়নি।

চট্টগ্রামে বাসিন্দা ট্রাক চালক মো: ইউছুপ বলেন, উন্নয়ন কাজের ঠিকাদারদের অর্ডারে আমি চট্টগ্রাম হতে ৫ টন রড নিয়ে গাড়ি প্রবেশ করার সময় সড়কের রডের উপর ধাক্কা লেগে গত দুই বছরে ১০-১২ টা নতুন চাকা নষ্ট হয়েছে।

NewsDetails_03

বাজার পরিচালনা কমিটি সাধারণ সম্পাদক মো: জসিম উদ্দিন বলেন, প্রতিদিন আমাদের বাজারে বাজার করার জন্য স্থানীয় লোকজন, পর্যটক, সরকারী বেসরকারী কর্মকর্তা কর্মচারীসহ প্রায় ৫ হাজার লোকে লোকারন্য বা আসে যায়। সড়কটি সংস্কারের জন্য গত ৪ বছরে প্রশাসন কে কতবার বলেছি ঠিক মনে নেই।

ক্ষুদ্র ব্যবসায়ী তোহিদুল ইসলাম বলেন, শুকনো মৌসুমে কেন রকমে পাঁয়ে চলাচল করা যায়, কিন্তু বর্ষা মৌসুমে সামান্য বৃস্টিতে হাটুর পর্যন্ত কাঁধা মাটি, যানবহনের চাকা থেকে কাদা ছিটিয়ে অনেকের কাপড় নষ্ট হয়ে যায়।

স্থানীয় সরকার প্রকৌশল অধিদপ্তর (এলজিইডি) উপজেলা প্রকৌশলী মো: এ্যামদাদুল হক বলেন, আমি যোগদানের পর দেখি সড়কের অবস্থা দেখে খুবই দু:খ লাগে। সে জন্য এলজিইডি মন্ত্রনালয়ে বারবার তদবির করার পর গত আগষ্টে টেন্ডার বিজ্ঞপ্তি প্রকাশ করেন। প্রায় ৭৭ লক্ষ টাকার ব্যয়ে সেপ্টেম্বর মাসের মেসার্স আয়ান এ্যান্টারপ্রাইজ এর মালিক মো: মহিউদ্দিনকে সড়কের লম্বা ৯৭৫ টু ১৮ মিটার পর্যন্ত নির্মান কাজের কার্যাদেশ দিয়েছি। কিন্তু কার্যাদেশ দেয়ার গত তিন মাসের ও সড়ক নির্মান বাস্তবায়ন কাজের শুরু দেখা যায়নি।

থানচি বাজার পরিচালনা কমিটি সভাপতি ও বাজার চৌধুরী খামলাই ম্রো বলেন, থানচি বাজারের বেহাল সড়কের সংস্কার করা জরুরী।

উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা ইউএনও মুহা: আবুল মনসুর বলেন, এলজিইডি উপজেলা প্রকৌশলীকে আমি এবং জেলা প্রশাসক মহোদয় অনেকবার বলেছি। সড়কটি জনগুরুত্বপূর্ন জাতীয় নির্বাচনের আগেই কাজ শেষ করতে।

আরও পড়ুন