দীঘিনালায় জনপ্রিয়তার শীর্ষে ওরা ৩ জন

খাগড়াছড়ির দীঘিনালা উপজেলার মেরুং, বোয়ালখালী ও কবাখালী ইউনিয়ন পরিষদের নির্বাচনী তফসিল ঘোষণা করেছে নির্বাচন কমিশন। সারাদেশের মতো ৩য় ধাপের ইউনিয়ন পরিষদ নির্বাচনী তফসিল অনুযায়ী উল্লেখিত ইউনিয়নসমূহে ভোট গ্রহণ ২৮ নভেম্বর অনুষ্ঠিত হবে৷

সূত্র মতে, তফসিল ঘোষণার পর থেকেই সরগরম হতে শুরু হয়েছে নির্বাচনী মাঠ। চেয়ারম্যান পদপ্রার্থীরা দলীয় মনোনয়ন পেতে তোরজোড় শুরু করে দিয়েছেন। ইতোমধ্যে উপজেলার জনবহুল মেরুং ইউনিয়নে সর্বশেষ আওয়ামী লীগের মনোনয়ন প্রত্যাশী ৬জন আওয়ামী লীগের ধানমন্ডি কার্যালয়ে দলীয় মনোনয়ন ফরম সংগ্রহ ও জমা দিয়েছেন।এরা হলেন বর্তমান ইউপি চেয়ারম্যান রহমান কবির রতন, উপজেলা আওয়ামী লীগের সাংগঠনিক সম্পাদক মোঃ শফিক,মনিরুল ইসলাম ফরাজি,উপজেলা মহিলা আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক মাহমুদা বেগম লাকী, উপজেলা যুবলীগের সাধারণ সম্পাদক এফ এম আলমগীর মিয়া, আওয়ামীলীগ নেতা নুরুল কবির ভুট্টু৷ এছাড়াও আরও ৪ জনের নাম শোনা গেলেও তারা রয়েছেন নীরব৷

এদিকে বোয়ালখালী ইউনিয়নে তৃনমুলের সমর্থনে নৌকার একক প্রার্থী ইউনিয়ন আওয়ামী লীগের সভাপতি মো. মোস্তফা ও কবাখালী ইউনিয়নে তৃনমুলের ভোটে নির্বাচিত উপজেলা আওয়ামী লীগের সাংগঠনিক সম্পাদক মো. বারেক একইসাথে মনোনয়ন ফরম সংগ্রহ ও জমা দিয়েছেন৷ বোয়ালখালী ইউনিয়নে নৌকার একক মনোনয়ন প্রত্যাশী হলেও কবাখালী ইউনিয়নে আরও ৩জন প্রার্থী নৌকার মনোনয়ন প্রত্যাশী৷ তারা হলেন সাবেক উপজেলা আওয়ামী লীগের সহ সভাপতি মো. মাহবুবুল আলম, সাবেক যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক ও বর্তমান চেয়ারম্যান মোঃ জাহাঙ্গীর হোসেন, উপজেলা আওয়ামী লীগের সাবেক সাংগঠনিক সম্পাদক মো. রওশন আলী ভুঁইয়া।

সূত্র মতে, এ নির্বাচনে বিএনপি সক্রিয় অংশগ্রহন না করলেও আওয়ামী লীগের পাশাপাশি স্বতন্ত্র প্রার্থী হিসেবে মেরুং ইউনিয়নে চেয়ারম্যান পদপ্রার্থী হওয়ার সম্ভাবনা রয়েছে শান্তি লোচন দেওয়ান ও হেমাব্রত চাকমা ওরফে হেমাব্রত কার্বারীর৷ পাশাপাশি বোয়ালখালী ইউনিয়ন পরিষদে স্বতন্ত্র প্রার্থী হিসেবে শোনা যাচ্ছে বর্তমান ইউপি চেয়ারম্যান চয়ন বিকাশ চাকমা (কালাধন)’র নাম। কবাখালী ইউপিতে স্বতন্ত্র চেয়ারম্যান পদপ্রার্থী হতে পারেন জ্ঞান বিকাশ চাকমা। প্রত্যেকেই পাহাড়ের আঞ্চলিক সংগঠন জাতীয় জনসংহতি সমিতি(জেএসএস)’র রাজনীতির সাথে জড়িত।

স্থানীয়দের মতে ইতোমধ্যে ইউপি নির্বাচনে দলীয় ও স্বতন্ত্র যেসব প্রার্থীর নাম শোনা যাচ্ছে তাদের মধ্যে জনপ্রিয়তার শীর্ষে মেরুং ইউপিতে বর্তমান চেয়ারম্যান রহমান কবির রতন, বোয়ালখালীতে ইউনিয়ন আওয়ামী লীগের সভাপতি মো. মোস্তফা ও কবাখালীতে উপজেলা আওয়ামী লীগের সাংগঠনিক সম্পাদক মো. বারেক। তিনজনই নৌকার মনোনয়ন প্রত্যাশী। তাছাড়া বর্তমান বোয়ালখালী ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান চয়ন বিকাশ চাকমা (কালাধন)’র ব্যাপক জনপ্রিয়তা রয়েছে। তবে নৌকার মনোনয়ন যেই পাক তাদের সাথে স্বতন্ত্র প্রার্থীদের লড়াই হবে তুঙ্গে।

খাগড়াছড়ি জেলা আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক ও খাগড়াছড়ি পৌরসভার মেয়র নির্মলেন্দু চৌধুরী বলেন, ৩য় ধাপের ইউপি নির্বাচনে দীঘিনালা ও মহালছড়ি উপজেলার ৭ ইউনিয়নে আগামী ২৮ নভেম্বর নির্বাচন অনুষ্ঠিত হবে। আশাকরি প্রতিটি ইউনিয়নে সৎ ও যোগ্য প্রার্থীদের নৌকার মনোনয়ন প্রদান করা হবে।

আরও পড়ুন
আপনার মন্তব্য লিখুন

আপনার ইমেইল ঠিকানা প্রকাশিত হবে না।