দীঘিনালায় ১৫ বছর বয়সী বালক’কে বলাৎকারের অভিযোগ

খাগড়াছড়ির দীঘিনালায় সাজেকে ভ্রমণ করতে আসা ১৫ বছর বয়সী বালককে বলাৎকারের অভিযোগে পুলিশ ১ জনকে আটক করেছে। অভিযুক্ত আরেকজন পলাতক রয়েছে।

১৫ ফেব্রুয়ারি (সোমবার) সন্ধ্যায় দীঘিনালা বাস টার্মিনাল সংলগ্ন দরবার হোটেল হতে সাজেকে ভ্রমণ করতে আসা ১৫ বছর বয়সী যুবককে উদ্ধার করে স্থানীয়রা। এ সময় অভিযুক্ত হোটেলের মালিক আবুল কালাম (৫৫) কে পুলিশে সোপর্দ করা হয়।

বলাৎকারের শিকার যুবক জানায়, সে নোয়াখালী হতে একা সাজেক ভ্রমণের উদ্দেশ্যে দিঘীনালা বাস টার্মিনালে এসে নামে ৷ এসময় দরবার হোটেলের মালিক মোঃ আবুল কালামের নিকট সাজেক যাওয়ার জন্য দিক নির্দেশনা জানতে চাইলে তিনি বালককে দীঘিনালা জীপ সমিতির লাইন কন্ট্রোলার নাসির উদ্দীন (মনা)কে দেখিয়ে দেন। তখন নাসির উদ্দীন (মনা) বালকটিকে নিজের মটরসাইকেলে উঠিয়ে দীঘিনালা কুমিল্লাটিলায় অবস্থিত তার নতুন বাড়িতে নিয়ে বাথরুমে আটকে রেখে বলাৎকার করে এবং কাউকে কিছু না বলতে হুমকি ধামকি প্রদান করে ছেড়ে দেয়।

তারপর বালকটি সেখান থেকে ফিরে আবারো দরবার হোটেলে আসলে হোটেলের মালিক মোঃ আবুল কালাম হোটেলের পিছনে তার শয়নকক্ষে বালকটিকে রেস্ট করতে বলে। কিছুক্ষণ পর সেই শয়নকক্ষেও মোঃ আবুল কালাম বালকটিকে বলাৎকার করার জন্য ভিতরে প্রবেশ করে দরজা লাগিয়ে দেয়। স্থানীয় লোকজন বিষয়টি টের পেয়ে সাথে সাথে দীঘিনালা থানা কে অবগত করলে পুলিশ ঘটনাস্থলে এসে বালকটিকে উদ্ধার করে এবং হোটেল মালিক মোঃ আবুল কালাম কে গ্রেফতার করে। ঘটনার পর থেকে নাসির উদ্দীন (মনা) পলাতক রয়েছে।

দীঘিনালা থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা উত্তম চন্দ্র দেব বলেন, আমরা বিষয়টি খতিয়ে দেখে আইনানুগ ব্যবস্থা গ্রহণ করছি৷

আরও পড়ুন

আপনার মন্তব্য লিখুন

আপনার ইমেইল ঠিকানা প্রকাশিত হবে না।