দীপংকর-মুছাতে আস্থা রাঙামাটি আওয়ামী লীগের

সকল জল্পনা-কল্পনার অবসান ঘটিয়ে দলের দুই আস্থাভাজন নেতা দীপংকর তালুকদার ও হাজী মোঃ মুছা মাতব্বরের উপর আস্থা রেখেছেন দলীয় কাউন্সিলররা। যদিওবা সভাপতি পদে আবারো বিনা প্রতিদ্ধন্ধিতায় নির্বাচিত হয়েছেন, গত ২৬ বছর ধরে সভাপতির পদ আগলে রাখা দীপংকর তালুকদার এমপি। তবে, ভোটাভুটিতে ২য় বারের মত জয়ী হয়ে সাধারণ সম্পাদক পদ ধরে রেখেছেন হাজী মোঃ মুছা মাতব্বর।

আজ মঙ্গলবার সকালে ক্ষুদ্র নৃ গোষ্ঠী ইনস্টিটিউট মাঠে শুরু হয় রাঙামাটি জেলা আওয়ামী লীগের ত্রি-বার্ষিক সম্মেলন। উৎসবমূখর ও শৃঙ্খলিত এ অনুষ্ঠানে ভিডিও কনফারেন্সের মাধ্যমে প্রধান অতিথি ছিলেন আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক, সড়ক যোগাযোগ ও সেতু মন্ত্রী ওবায়দুল কাদের এমপি।

অনুষ্ঠানে উদ্বোধক ছিলেন আওয়ামী লীগের প্রেসিডিয়াম সদস্য ইঞ্জিনিয়ার মোশাররফ হোসেন এমপি।

প্রধান অতিথির বক্তব্যে সড়ক যোগাযোগ ও সেতু মন্ত্রী ওবায়দুল কাদের এমপি বলেন, শান্তি চুক্তি বাস্তবায়ন হবেই। চুক্তি বাস্তবায়নের ক্ষেত্রে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা অত্যন্ত আন্তরিক। তার আন্তরিকতায় পার্বত্য চট্টগ্রামের চেহারা পাল্টে গেছে। অভূতপুর্ব উন্নয়ন সাধিত হয়েছে। ভুমি সমস্যা সমাধান না হলেও, বাকি সব সমস্যা সমাধান হয়ে গেছে। মাঝেমধ্যে রক্তপাত হচ্ছে, সেটি বন্ধ করতে হবে।
তিনি বলেন, বিএনপির নেতারা এখন গনকের ভুমিকায় অবতীর্ন হয়েছে। পদ্মা সেতু হয়ে যাওয়ায় তাদের চেহারায় এখন শ্রাবনের কালো মেঘে ঢাকা পড়ে গেছে। বিষ যন্ত্রণায় তাদের অন্তর জ্বলছে।

আওয়ামী লীগের প্রেসিডিয়াম সদস্য মোশাররফ হোসেন বলেন, বিএনপির নেতারা এখন শ্রীলংকার অবস্থার সাথে বাংলাদেশকে মিলিয়ে ফেলেন। কিন্তু মনে রাখবেন, যতদিন শেখ হাসিনা থাকবে বাংলাদেশ কখনো শ্রীলঙ্কা হবে না। নির্বাচন কমিশন স্বাধীনভাবে কাজ করছে বলে উল্লেখ করে বলেন, আগামী নির্বাচন অবাধ সুষ্ঠু নিরপেক্ষ হবে।

রাঙামাটি আওয়ামী লীগের সভাপতি দীপংকর তালুকদারের সভাপতিত্বে সম্মেলনে প্রথম অধিবেশনে বক্তব্য রাখেন, আওয়ামী লীগের সাংগঠনিক সম্পাদক আবু সাঈদ আল মাহমুদ এমপি, ধর্ম বিষয়ক সম্পাদক এডভোকেট সিরাজুল ইসলাম মোস্তফা, ত্রাণ ও সমাজ কল্যাণ বিষয়ক সম্পাদক সুজিত রায় নন্দী, অর্থ ও পরিকল্পনা বিষয়ক সম্পাদকওেয়াসিকা আয়েশা খান, উপ প্রচার ও প্রকাশনা সম্পাদক আমিনুল ইসলাম। সঞ্চালনা করেন রাঙামাটি জেলা আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক হাজী মোঃ মুছা মাতব্বর।

সম্মেলনের দ্বিতীয় অধিবেশনে বিনা প্রতিদ্ধন্ধিতায় আবারো রাঙামাটি আওয়ামী লীগের সভাপতি হয়েছেন দীপংকর তালুকদার। ভোটে সাধারণ সম্পাদক নির্বাচিত হয়েছে বর্তমান সাধারণ সম্পাদক হাজী মোঃ মুছা মাতব্বর। জেলার মোট ২৪৬টি ভেটের মধ্যে থেকে মুছা পান ১৩৮ ভোট। তার নিকটতম প্রার্থী হাজী কামাল উদ্দিন পান ১০২ ভোট।

সূত্র থেকে জানা গেছে, সভাপতি পদের দুই প্রার্থী দীপংকর তালুকদার ও নিখিল কুমার চাকমাকে নিয়ে আলাদা বৈঠক করেন আওয়ামী লীগের প্রেসিডিয়াম সদস্য ইঞ্জিনিয়ার মোশাররফ হোসেন এমপি। বৈঠকে নিখিলকে প্রার্থীতা প্রত্যাহার করে দীপংকর তালুকদারকে শেষবারের মত সুযোগ দেওয়ার অনুরোধ জানান।

প্রসঙ্গত, রাঙামাটি জেলা আওয়ামী লীগের সর্বশেষ সম্মেলন অনুষ্ঠিত হয়েছিল ১০ বছর আগে ২০১২ সালের ৮ ডিসেম্বর। ওই সম্মেলনে সভাপতি পদে কোন প্রতিদ্বন্ধি প্রার্থী না থাকায় দীপংকর তালুকদার সভাপতি মনোনিত হন। এবং সাধারণ সম্পাদক পদের ভোটাভুটিতে নির্বাচিত হন হাজী মোঃ মুছা মাতব্বর। তার প্রতিদ্বন্ধি ছিলেন হাজী কামাল উদ্দিন।

আরও পড়ুন
আপনার মন্তব্য লিখুন

আপনার ইমেইল ঠিকানা প্রকাশিত হবে না।