দেশে এখনো মৌলবাদি রয়েছে, আমাদের সতর্ক থাকতে হবে : দীপংকর তালুকদার

অনুকূলচন্দ্রের ১২৯তম জন্ম মহোৎসবে সাবেক পার্বত্য প্রতিমন্ত্রী দীপংকর তালুকদার
বাংলাদেশ আওয়ামীলীগের কেন্দ্রীয় কমিটির সদস্য ও প্রাক্তন পার্বত্য প্রতিমন্ত্রী দীপংকর তালুকদার বলেছেন,আওয়ামীলীগ সরকার সাম্প্রদায়িক সম্প্রীতির সরকার। জাতির পিতা বঙ্গবন্ধুর সুযোগ্য কণ্যা বর্তমান সরকারের প্রধানমন্ত্রী জননেত্রী শেখ হাসিনা দৃঢ়ভাবে বিশ্বাস করে যে, যার যার ধর্ম সে সে পালন করবে এবং নিরাপদেই পালন করবে।
তিনি দেশে যার যার ধর্ম সে সে যাতে সঠিকভাবে পালন করতে পারে সে পরিবেশটি তৈরি করেছে। এ পরিবেশটি বজায় রাখতে বর্তমান সরকার সবসময় চেষ্ঠা করে যাচ্ছে। কিন্তু তা সত্বেও দেশে এখনো কিছু মৌলবাদি রয়েছে। উদ্দ্যেশ্যে মূলকভাবে তারা ধর্মকে ব্যবহার করে। উদ্দ্যেশ্যে মূলকভাবে তারা আমাদের মধ্যে সাম্প্রদায়িক সংঘর্ষ লাগিয়ে দেওয়ার চেষ্ঠা করে। এদের সম্পর্কে সবসময় আমাদের সতর্ক থাকতে হবে।
তিনি আরো বলেন, মৌলবাদিরা মানুষের কল্যানে নয় নিজেদের গোষ্ঠী তন্ত্রের স্বার্থে নিজেদের ব্যাক্তিগত স্বার্থে তারা ধর্মকে ব্যবহার করছে। ধর্মকে যারা এভাবে ব্যবহার করে তাদের সঙ্গ ত্যাগ করতে হবে, কারণ তারা মানুষ নয় তারা অমানুষ। এ অমানুষদের সঙ্গ যেন আমরা ত্যাগ করতে পারি। তিনি বলেন, দেশে বসবাসকারী সকল সম্প্রদায় মিলে এ দেশকে একটি সুখী সমৃদ্ধি বাংলাদেশ হিসেবে গড়ে তুলতে সবাইকে কাজ করতে হবে।
সোমবার সকালে রাঙামাটির বাঘাইছড়ি উপজেলার মারিশ্যা এলাকার কালী মন্দির প্রাঙ্গণে ধর্মীয় সংগঠন সৎসঙ্গের আয়োজনে যুগপুরুষোত্তম পরমপ্রেমময় শ্রী শ্রী অনুকূলচন্দ্রের ১২৯তম জন্ম মহোৎসব উপলক্ষে আয়োজিত ধর্মীয় সভায় প্রধান অতিথির বক্তব্যে সাবেক পার্বত্য প্রতিমন্ত্রী এ কথা বলেন।
সৎসঙ্গের সভাপতি প্রেমানন্দ কর্মকারের সভাপতিত্বে ধর্মীয় সভায় বিশেষ অতিথি হিসেবে রাঙামাটি পার্বত্য জেলা পরিষদ চেয়ারম্যান ও বাঘাইছড়ি উপজেলা আওয়ামীলীগ সভাপতি বৃষ কেতু চাকমা, জেলা আওয়ামী সদস্য শিক্ষক বাদল চন্দ্র দে, জাফর আলী খান, বাঘাইছড়ি উপজেলা আওয়ামীলীগ সিনিয়র সহ-সভাপতি আব্দুর শুক্কুর মিয়া, সহ-সভাপতি প্রিয়নন্দ চাকমা, সাধারণ সম্পাদক আলী হোসেন, যুগ্ন সাধারণ সম্পাদক অমলেন্দু চাকমা, বাঘাইছড়ি প্রেসক্লাব সভাপতি দীলিপ কুমার দে, সাজেক ইউনিয়ন পরিষদ চেয়ারম্যান ন্যানশন চাকমা ও বাঘাইছড়ি পৌর আওয়ামীলীগের সভাপতি জমির হোসেন বক্তব্য রাখেন।
সভায় রাঙামাটি পার্বত্য জেলা পরিষদ চেয়ারম্যান ও বাঘাইছড়ি উপজেলা আওয়ামীলীগ সভাপতি বৃষ কেতু চাকমা বলেন, পৃথিবীতে যখনই অতিমাত্রায় সংঘর্ষ, মারামারি হানাহানি অন্যায় বেড়ে যায় তথন এসব দমন করতে মানবগর্ভে মহা পুরুষের জন্ম হয়। ঠিক এমনি এক মহাপুরুষ হচ্ছে শ্রী অনুকূলচন্দ্র। তিনি সবসময় মানব জাতির শান্তি ও কল্যানে বিভিন্ন শান্তির বাণী দিয়ে গেছেন। তার এ বাণী শ্রবন ও অনুস্মরণ করে আমাদের সমাজ তথা দেশের মানুষের কল্যানে কাজ করতে হবে।
তিনি বলেন, বর্তমান সরকার এদেশের সকল সম্প্রদায়ের মানুষের শান্তি, উন্নয়ন ও কল্যাণে সবসময় কাজ করে যাচ্ছে। কিন্তু একটি গোষ্ঠী তার উন্নয়নে বাঁধা প্রদান করতে বিভিন্ন সময় সাম্প্রদায়িক সংঘর্ষ, হত্যা, গুমসহ বিভিন্ন জঙ্গীবাদী কার্যক্রম চালাচ্ছে। এ কুচক্রটি চাইনা এদেশের মানুষ শান্তিতে থাকুক। তিনি এ কুচক্রী মহল থেকে সকলকে দূরে থাকার আহবান জানান। এসময় বৃষ কেতু চাকমা বাঘাইছড়ি মারিশ্যা শ্রী শ্রী কালী মন্দিরটি নির্মানের জন্য পার্বত্য জেলা পরিষদ থেকে ৫০লক্ষ টাকা অনুদান দেওয়ার প্রতিশ্রুতি দেন।

আরও পড়ুন
আপনার মন্তব্য লিখুন

আপনার ইমেইল ঠিকানা প্রকাশিত হবে না।