ধর্ষণকারীদের শাস্তির দাবিতে রুমায় মানববন্ধন

ধর্ষণকারীদের শাস্তির দাবিতে রুমায় মানববন্ধন
বান্দরবানের রাজপূণ্যাহ‘ মেলায় এসএসসি পরীক্ষার্থী এক কিশোরীর ধর্ষণকারীদের অবিলম্বে গ্রেপ্তার করে কঠোর শাস্তির দাবিতে রুমা সদরে মানববন্দন ও বিক্ষোভ সমাবেশ অনুষ্টিত হয়েছে।
মারমা ইয়ূথ ওয়েল ফেয়ার এসোসিয়েশন‘র আয়োজনে মঙ্গলবার সকাল সাড়ে ১০টায় এক বিক্ষোভ সমাবেশ অনুষ্ঠিত হয়। ইয়ুথ ওয়েল ফেয়ার এসোসিয়েশনের সভাপতি অংসিংথোয়াই মারমার সভাপতিত্বে বক্তব্য রাখেন সমাজ সংগঠক মংমংসিং মারমা, যুব নেতা ঞ্রোহ্লা মারমা, ছাত্র নেতা মংমিন মারমা, ও থুইনু প্রু মার্মা প্রমুখ।
মংক্যচিং মারমা উপস্থাপনায় বক্তারা বলেন, ক্ষমতাসীন দলের লোকেরা দিনে সাধারণ মানুষকে দেশ উন্নয়নের ডিজিটালাইজের কথা প্রচার করে বেড়ায়, আবার রাতে তারাই জোরপূর্বক নারীদের গণধর্ষণ করতে কোন দ্বিধাবোধ করেনা। প্রশাসনও এনিয়ে কঠোর কোনো পদক্ষেপ নিচ্ছেনা।
তারা আরো বলেন, বান্দরবানের রাজপূন্যাহ‘য় ওই কিশোরী ধর্ষণকারী অভিযুক্ত আরো তিনজনকেও আগামী ৭দিনের মধ্যে গ্রেপ্তার পূর্বক আইনের আওতায় এনে কঠোর শাস্তি দিতে হবে, তা না হলে কঠোর কর্মসূচি গ্রহনের হুশিয়ারি উচ্চারণ করেন বক্তারা। এর আগে সকাল সাড়ে ৯টা থেকে ১০টা পর্যন্ত মোট ৪৫মিনিট রুমা বাজার হরিমন্দির মার্কেটের সামনে মানববন্ধন পালন করা হয়।
বান্দরবানের রাজ পূণ্যাহ‘য় মেলা দেখতে গিয়ে গত ২৩ ডিসেম্বর রাতে কিশোরীর প্রেমিক উপোছাই মারমা‘র সাথে শহরের শিশু পার্কেও জন্য নির্ধারিত রোয়াংছড়ি বাসষ্টেশন পার্শ্ববর্তী এলাকায় বেড়াতে গেলে গণধর্ষণের শিকার হয় ১৭বছরের বয়সী আদিবাসী কিশোরী। তার বাড়ি রুমায় থানা পাড়া এলাকায়।
প্রসঙ্গত, এঘটনায় অভিযুক্ত চার আসামীর মধ্যে বান্দরবান শহরের বালাঘাটার মুন্ডি ব্যবসায়ি ও যুবলীগ নেতা কাজল বড়ুয়া নামে একজনকে ইতোমধ্যে বান্দরবান সদর থানা পুলিশ গ্রেফতার করে, বাকী তিনজন এখনো পলাতক রয়েছে।

আরও পড়ুন
আপনার মন্তব্য লিখুন

আপনার ইমেইল ঠিকানা প্রকাশিত হবে না।