ধর্ষণের অভিযোগে রুমা সদর ইউনিয়নের চৌকিদার অংক্যসিং মার্মা আটক

বান্দরবানের রুমা সদর ইউনিয়নের চৌকিদার অংক্যসিং মার্মা (৩৭) কে এক নারীকে ধর্ষণের অভিযোগে আটক করা হয়েছে। এঘটনায় রুমা থানায় শিশু ও নারী নির্যাতন আইনে মামলা প্রক্রিয়া চলছে বলে জানা গেছে।

পাড়াবাসী ও পুলিশের সূত্রে জানা যায়, ১২ আগস্ট দুপুরে রুমা চড় উপর পাড়ার জনৈক খামারে কাজ করার সময় অংক্যসিং মারমা বিভিন্ন প্রলোভন দেখিয়ে খামার বাড়িতে নিয়ে যায়, পরে পাশের সেগুন বাগানে নিয়ে ধর্ষণ করে। তবে ঘটনার ২১ দিন পর ভুক্তভোগী রুমা থানায় অভিযোগ দাখিল করেন। গত বৃহস্পতিবার (১ সেপ্টেম্বর) বিকালে রুমা থানায় ধর্ষণের অভিযোগ দাখিল করেন।

ভূক্তভোগী ও তাঁর আত্মীয় স্বজনরা জানান, গত ১২আগষ্ট দুপুরে রুমাচড় নিজ পাড়ায় অংশৈপ্রু মার্মা খামারে কাজ করার সময় ভুক্তভোগী ওই নারীকে বিভিন্ন কৌশল ও প্রলোভন দেখিয়ে খামারের পাশের সেগুন বাগানে ডেকে নিয়ে যায় অভিযুক্ত অংক্যসিং মারমা। তখন ওই নারীকে ধর্ষন করে বলে জানায়। অভিযুক্ত ধর্ষক অংক্যসিং মারমা পেশায় রুমা সদর ইউনিয়নের বেতনভাতা ভোগী চৌকিদার হিসেবে কাজ করেন।

উল্লেখ্য, ভুক্তভোগী নারী ও অভিযুক্ত ধর্ষক দুইজনের বাড়ি রুমাচড় পাড়ার বাসিন্দা এবং উভয়ে বিবাহিত ও তাদের নিজ নিজ সংসারে সন্তানও রয়েছে।

পরে এ অভিযোগে রুমা থানা পুলিশের একটি দল অভিযান চালিয়ে ধর্ষণের অভিযুক্ত অংক্যসিং মার্মা কে আটক করে রুমা থানায় নিয়ে আসেন। এই প্রতিবেদন লেখা পর্যন্ত রুমা থানায় ধর্ষনের মামলা প্রক্রিয়াধীন আছে বলে জানা গেছে।

আরও পড়ুন