নমুনা পরীক্ষার তুলনায় বেড়েছে শনাক্ত

বিগত দিনগুলোর তুলনায় করোনার নমুনা পরীক্ষায় শনাক্তের হার বেড়েছে। এর আগে করোনার নমুনা পরীক্ষার শনাক্তের হার ১০ থেকে ১১ দশমিক ৯৯ শতাংশ ছিল। বর্তমানে তা বেড়ে হয়েছে সাড়ে ১২ শতাংশ। মঙ্গলবার (১০ নভেম্বর) স্বাস্থ্য অধিদফতর থেকে পাঠানো সংবাদ বিজ্ঞপ্তিতে এই তথ্য জানা যায়।

গত ২৪ ঘণ্টায় নমুনা সংগ্রহ করা হয়েছে ১৩ হাজার ৬১৬টি, নমুনা পরীক্ষা করা হয়েছে ১৩ হাজার ৫২০টি। এখন পর্যন্ত ২৪ লাখ ৭০ হাজার ১৬৪টি নমুনা পরীক্ষা করা হয়েছে। নমুনা পরীক্ষায় গত ২৪ ঘণ্টায় এক হাজার ৬৯৯ জন এবং এখন পর্যন্ত ৪ লাখ ২৩ হাজার ৬২০ জন শনাক্ত হয়েছেন। গত ২৪ ঘণ্টায় মারা গেছেন ১৬ জন। এই পর্যন্ত মোট ৬ হাজার ১০৮ জনের মৃত্যু হয়েছে। ২৪ ঘণ্টায় এক হাজার ৬৪৮ জন এবং এখন পর্যন্ত ৩ লাখ ৪১ হাজার ৪১৬ জন সুস্থ হয়েছেন।

স্বাস্থ্য অধিদফতর জানায়, নমুনা পরীক্ষায় গত ২৪ ঘণ্টায় ১২ দশমিক ৫৭ এবং এখন পর্যন্ত ১৭ দশমিক ১৫ শতাংশ শনাক্ত হয়েছেন। শনাক্ত বিবেচনায় সুস্থ হয়েছেন ৮০ দশমিক ৫৯ শতাংশ এবং মারা গেছেন ১ দশমিক ৪৪ শতাংশ।

২৪ ঘণ্টায় মারা যাওয়াদের ১৫ জন পুরুষ এবং একজন নারী। এখন পর্যন্ত ৪ হাজার ৭০৩ জন পুরুষ এবং ১ হাজার ৪০৫ জন নারী মারা গেছেন। ২৪ ঘণ্টায় মারা যাওয়াদের বয়স বিশ্লেষণে দেখা যায়, ষাটোর্ধ্ব ১২ জন, ৫১ থেকে ৬০ বছরের মধ্যে ২ জন এবং ৪১ থেকে ৫০ বছরের মধ্যে ২ জন রয়েছেন। বিভাগ বিশ্লেষণে দেখা যায়, তাদের মধ্যে ঢাকা বিভাগে ১০ জন, চট্টগ্রামে ৩ জন এবং রাজশাহী, খুলনা ও বরিশালে একজন করে মারা গেছেন। ২৪ ঘণ্টায় হাসপাতালে ১৫ জন এবং বাড়িতে একজন মারা গেছেন।

সংবাদ বিজ্ঞপ্তিতে স্বাস্থ্য অধিদফতর আরও জানায়, গত ২৪ ঘণ্টায় আইসোলেশনে রাখা হয়েছে ১৬৮ জনকে। বর্তমানে আইসোলেশনে আছেন ১২ হাজার ১৯৮ জন। ২৪ ঘণ্টায় আইসোলেশন থেকে ছাড় পেয়েছেন ১৬৮ জন, এখন পর্যন্ত ছাড় পেয়েছেন ৭৫ হাজার ৪৩৭ জন। এখন পর্যন্ত আইসোলেশন করা হয়েছে ৮৭ হাজার ৬৩৫ জনকে। প্রাতিষ্ঠানিক ও হোম কোয়ারেন্টিন মিলে ২৪ ঘণ্টায় কোয়ারেন্টিন করা হয়েছে ৭২৬ জনকে। কোয়ারেন্টিন থেকে গত ২৪ ঘণ্টায় ছাড় পেয়েছেন ৯৪৪ জন, এখন পর্যন্ত ছাড় পেয়েছেন ৫ লাখ ২২ হাজার ৩৫৭ জন। এখন পর্যন্ত কোয়ারেন্টিন করা হয়েছে ৫ লাখ ৬২ হাজার ৬৩ জনকে। বর্তমানে কোয়ারেন্টিনে আছেন ৩৯ হাজার ৭০৬ জন।

আরও পড়ুন

আপনার মন্তব্য লিখুন

আপনার ইমেইল ঠিকানা প্রকাশিত হবে না।