নাইক্ষ্যংছড়িতে বিজিবি ও সন্ত্রাসীদের মধ্যে গোলাগুলি

বান্দরবানের নাইক্ষ্যংছড়িতে বাংলাদেশ-মিয়ানমার সীমান্ত এলাকার গহীন অরণ্যে সন্ত্রাসীদের সঙ্গে বিজিবি সদস্যদের গোলাগুলির ঘটনা ঘটেছে। আজ বুধবার (০১ সেপ্টেম্বর) উপজেলার দৌছড়ির ছাগলখাইয়া এলাকায় অভিযানে গেলে একটি সশস্ত্র সন্ত্রাসী বাহিনীর সঙ্গে নাইক্ষ্যংছড়ি ১১ বিজিবি সদস্যদের গোলাগুলি শুরু হয়।

সেনাবাহিনী ও বিজিবি সূত্রে জানা যায়, গোয়েন্দা তথ্যের ভিত্তিতে ১ সেপ্টেম্বর ভোরে বান্দরবান রিজিয়নের অধীনস্থ নাইক্ষ্যংছড়ি জোন এর ছাগলখাইয়া ক্যাম্প হতে সন্দেহভাজন সশস্ত্র সন্ত্রাসী দলকে নির্মুল করার লক্ষ্যে নাইক্ষ্যংছড়ি জোনের জোন কমান্ডার লে: কর্নেল শাহ্ আবদুল আজীজ আহমেদ, এসপিপি এর নেতৃত্বে সেনাবাহিনী ও বিজিবির ৮টি টহল দলের সমন্বয়ে উপজেলার চাক পাড়া এলাকায় একটি অভিযান পরিচালনা করা হয়।

এসময় সেনাবাহিনী ও বিজিবির যৌথ অভিযানে জেএসএস সন্ত্রাসী গ্রুপের সাথে গুলি বিনিময় হয়। গোলাগুলির এক পর্যায়ে জেএসএস সন্ত্রাসী গ্রুপের বেশ কয়েকজন গুরুতর আহত হয়। প্রায় দেড় ঘন্টা গোলাগুলির পর জেএসএস সন্ত্রাসীরা পিছু হটতে বাধ্য হয়। এ ঘটনার পর ঐ এলাকায় থমথমে পরিবেশ বিরাজ করছে।

নাইক্ষ্যংছড়ি জোনের জোন কমান্ডার লে: কর্নেল শাহ্ আবদুল আজীজ আহমেদ বলেন, গোপন তথ্যের ভিত্তিতে নাইক্ষ্যংছড়ি দূর্গম সীমান্তের চাক পাড়া এলাকায় সেনাবাহিনী ও বিজিবির সমন্বয়ে একটি অভিযান পরিচালনা করা হয়।

অভিযান পরিচালনাকালে জেএসএস সন্ত্রাসী গ্রুপের সাথে আমাদের গুলি বিনিময় হয়। প্রায় দেড় ঘন্টা গোলাগুলির পর এক পর্যায়ে জেএসএস সন্ত্রাসী গ্রুপটি পালিয়ে যায়। এ ধরনের অভিযান অব্যাহত থাকবে বলেও জানান এ কর্মকর্তা।

আরও পড়ুন
আপনার মন্তব্য লিখুন

আপনার ইমেইল ঠিকানা প্রকাশিত হবে না।