নাইক্ষ্যংছড়িতে মুক্তিপনে মুক্ত হলেন অপহৃত তামাক চাষী

বান্দরবানের নাইক্ষ্যংছড়ি উপজেলার দূর্গম পাহাড়ি জনপদ দোছড়ি ইউনিয়নের বাঁকখালী মৌজার মামা-ভাগিনা ঝিরি নামক এলাকা থেকে অপহৃত তামাক চাষী সাইফুল অপরহরণকারীদের হাত থেকে মুক্তিপনের বিনিময়ে ৫ দিন পর মুক্ত হয়েছে। শনিবার দিবাগত রাত ২টার দিকে নাইক্ষ্যংছড়ি উপজেলার বাইশারী ইউনিয়নের থ্রী-স্টার রাবার বাগান এলাকায় সন্ত্রাসীরা তাকে ছেড়ে দেয়।
দৌছড়ি ইউপি চেয়ারম্যান আলহজ্ব মো. হাবিবুল্লাহ ও তার পরিবার সাংবাদিকদের জানায়, ৫ দিন পর অবশেষে ৭০ হাজার টাকার বিনিময়ে অপহরণকারীরা নাইক্ষ্যংছড়ি উপজেলার বাইশারী ইউনিয়নের থ্রী-স্টার রাবার বাগান এলাকায় শনিবার গভীর রাতে তাকে ছেড়ে দেয়। এদিকে পুলিশ জানায়, অপহরনের পর থেকে উদ্ধারে তৎপরতা চালায় পুলিশ ও বিজিবি। যৌথ অভিযানের তাড়া খেয়ে তাকে ছেড়ে দিতে বাধ্য হয় সন্ত্রাসীরা।
গত বুধবার (১৮ এপ্রিল) ভোরে মৃত আব্দুল হক মিয়ার ছেলে সাইফুল ইসলাম (১৮) কে তামাক ক্ষেত থেকে ৭/৮ জনের স্বশস্ত্র সন্ত্রাসী দল অপহরণ করে নিয়ে যায়। এর পরে অপহৃত সাইফুলকে ছাড়তে মোবাইলে ৪ লাখ টাকা মুক্তিপণ দাবি করে অপহরণকারীরা। টানা পাঁচদিন দেনদরবার শেষে ৭০ হাজার টাকা মুক্তিপনে অপহরণকারীরা সাইফুলকে ছেড়ে দেয় বলে জানান তার পালক পিতা নুর আহমদ।
উল্লেখ্য, ১৮ এপ্রিল ভোরে তামাক ক্ষেত থেকে সাইফুলকে অপহরণ করা হয়। গত ৩ মাস পূর্বেও একই এলাকা থেকে সশস্ত্র সন্ত্রাসীরা ৩ তামাক চাষী অপহরণের স্বীকার হয়েছিল। অপহরণের ৮ দিন পর জিম্মিদশা থেকে মুক্তিপনের বিনিময়ে ফিরে আসে রামু উপজেলার ওই তিন ব্যক্তি।

আরও পড়ুন
আপনার মন্তব্য লিখুন

আপনার ইমেইল ঠিকানা প্রকাশিত হবে না।