নাইক্ষ্যংছড়ির নিহতদের পরিবারকে ১০হাজার করে সহায়তা দিচ্ছে রেড ক্রিসেন্ট

রেড ক্রিসেন্ট ইউনিট সেক্রেটারী একেএম জাহাঙ্গীর এর সাথে বৈঠক করেন আইসিআরসির সমন্বয়কারী আবদুস সালোম
বান্দরবানের নাইক্ষ্যংছড়ি উপজেলায় রেড ক্রিসেন্টের ত্রাণবাহী ট্রাক খাদে পড়ে নিহত ৯ জনের পরিবারকে ১০ হাজার টাকা করে আর্থিক সহায়তা প্রদান করা হবে রেড ক্রিসেন্ট এর পক্ষ থেকে।
রেড ক্রিসেন্ট এর সূত্রে জানা গেছে, কাল রোববার কেন্দ্রিয় আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক, যোগাযোগ মন্ত্রী ওবায়দুল কাদের জেলার নাইক্ষ্যংছড়ি উপজেলা প্রশাসনের সাথে মতবিনিময় সভায় রেড ক্রিসেন্টের এই অর্থ নিহতদের পরিবারের সদস্যদের প্রদান করবেন।
আরো জানা গেছে, নাইক্ষ্যংছড়ির দূর্ঘটনার পর রেড ক্রিসেন্টের ত্রান তৎপরতা বন্ধ থাকলেও বান্দরবানের রোহিঙ্গাদের ত্রাণ তৎপরতা অব্যাহত রাখতে আজ সকালে বান্দরবানের জেলা প্রশাসক, পুলিশ সুপার এবং রেড ক্রিসেন্ট ইউনিট সেক্রেটারী একেএম জাহাঙ্গীর এর সাথে দফায় দফায় বৈঠক করেন আইসিআরসির সমন্বয়কারী আবদুস সালোম।
নাইক্ষ্যংছড়ির দুর্গম এলাকা সমুহে নিরাপদে নির্বিঘ্নে কি ভাবে ত্রান সামগ্রী পৌছে দেয়া যায় এ বিষয়ে আলোচনা করা হয়। এসময় প্রশাসন থেকে বলা হয় ,পরবর্তিতে ত্রান সরবরাহের কাজে যেন কোন ভাবে বড় ট্রাক নিয়ে নাইক্ষ্যংছড়ি রোহিঙ্গা শরনার্থী এলাকার ভিতরে প্রবেশ না করে সে বিষয়ে যাতে রেড ক্রস থেকে কড়াকড়ি নির্দেশনা থাকে। কাল রবিবার থেকে পূনরায় সাপমারা ঝিড়ি এলাকায় শুরু হবে রোহিঙ্গাদের মাঝে ২১ দিনের ত্রান বিতরণ তৎপরতা।
প্রসঙ্গত, গত বৃহস্পতিবার সকাল আটটায় বান্দরবানের নাইক্ষ্যংছড়িতে রেডক্রিসেন্ট ত্রাণবাহীগাড়ি খাদে পড়ে ৯ জন নিহত হয় আর আহত হয় ১০জন । নিহতরা হলেন, আব্দুল মাবুদ (৪৫), সুদর্শন বড়ুয়া (৫৫),সুলতান আহম্মেদ (৫০) মো: আব্দুল্লাহ (১৬),মামুনুল হাকিম(১৭), জলিল আহাম্মদ (৪০) সুরত আলম (৩৫) আব্দুল্লাহ (১৮), ছৈয়দুল আমিন (২৬)। নিহতরা সবাই নাইক্ষ্যংছড়ি সদর ইউনিয়নের ১, ২ ও ৩নং ওয়ার্ড এলাকার বাসিন্দা।

আরও পড়ুন
আপনার মন্তব্য লিখুন

আপনার ইমেইল ঠিকানা প্রকাশিত হবে না।