নাইক্ষ্যংছড়ির ২ ইউনিয়ন পরিষদের নির্বাচনকে কেন্দ্র করে সরব সম্ভাব্য প্রার্থীরা

বান্দরবানের নাইক্ষ্যংছড়ি উপজেলার ২ ইউনিয়ন পরিষদের সাধারণ নির্বাচনের তফসিল ঘোষণা করা হয়েছে। গত বুধবার (২৯ সেপ্টেম্বর) ইসির উপসচিব মুহাম্মদ আশফাকুর রহমান এর স্বাক্ষরিত এক বিজ্ঞপ্তিতে এ তফসিল ঘোষণা করেন। সে অনুযায়ী আগামী ১১ নভেম্বর নির্বাচন অনুষ্ঠিত হবে। বান্দরবান জেলা নির্বাচন কর্মকর্তা মোঃ রেজাউল করিম সাংবাদিকদের এ তথ্য নিশ্চিত করেছেন।

তফসিল অনুযায়ী নাইক্ষ্যংছড়ির বাইশারী ও দৌছড়ি ইউপি নির্বাচনে প্রার্থীদের রিটার্নিং অফিসারের কাছে মনোনয়নপত্র দাখিলের শেষ দিন ১৭ অক্টোবর (রবিবার)। মনোনয়নপত্র বাছাই হবে ২০ অক্টোবর (বুধবার)। আর প্রার্থিতা প্রত্যাহারের শেষ দিন ২৬ অক্টোবর (মঙ্গলবার)। আর এদিকে গত ২৯ সেপ্টেম্বর নির্বাচনের তফসিল ঘোষণায় সম্ভাব্য প্রার্থীরা নড়েচড়ে বসতে শুরু করেছে।

২ অক্টোবর (শনিবার) সকাল ১১টায় উপজেলা আওয়ামী লীগ কমিটিসহ ৫ ইউনিয়নের সভাপতি- সাধারণ সম্পাদক ও সম্ভাব্য চেয়ারম্যান প্রার্থীদের নিয়ে বর্ধিত সভার আয়োজন করেন জেলা
আওয়ামী লীগ। বর্ধিত সভায় উপস্থিত ছিলেন পার্বত্যমন্ত্রী বীর বাহাদুর এমপি।

সরকার দলীয় মনোনয়ন পাওয়ার আশায় জেলার নেতাদের কাছে তদবির, আবার ভোটারদের এলাকার চায়ের দোকান, মানুষের সমাগম স্থলে গিয়ে দোয়া ও কুশল বিনিময় করে যাচ্ছে। তবে বিএনপির সম্ভাব্য প্রার্থীরা দলীয় নীতিনির্ধারকদের সিদ্ধান্তের অপেক্ষায় দিন গুণছে। সব মিলে সম্ভাব্য প্রার্থীরা প্রচারণা শুরু করে দিয়েছে।

উপজেলার বাইশারী ও দৌছড়ি ইউপি নির্বাচনে সম্ভাব্য চেয়ারম্যান প্রার্থী হিসেবে দৌঁড়ঝাপ দেখা যাচ্ছে বর্তমান বাইশারী ইউনিয়নের বর্তমান চেয়ারম্যান, জেলা আওয়ামীলীগ সদস্য ও উপজেলা আওয়ামীলীগ সহ-সভাপতি মোহাম্মদ আলম কোম্পানী, বাইশারী ইউনিয়ন আওয়ামীলীগ সভাপতি ও সাবেক আওয়ামী যুবলীগ সভাপতি মোহাম্মদ জাহাঙ্গীর আলম বাহাদুর, ইউনিয়ন ছাত্রলীগ সভাপতি এনকে রিপন।

আর এদিকে দৌছড়ি বর্তমান ইউপি চেয়ারম্যান, ইউনিয়ন আওয়ামী লীগ সভাপতি ও সাবেক উপজেলা আওয়ামী লীগ সভাপতি আলহাজ্ব মুহাম্মদ হাবীব উল্লাহ, উপজেলা আওয়ামী লীগ সাধারণ সম্পাদক মোহাম্মদ ইমরান, আওয়ামী লীগ নেতা নেছার আহাম্মদ, ইউনিয়ন বিএনপি,র সভাপতি ও সাবেক চেয়ারম্যান মুহাম্মদ আব্দুর রশিদ,আওয়ামী নেতা মুহাম্মদ আলম প্রকাশ ডাঃ আলম।

সরজমিনে ঘুরে জানা যায়, তফসীল ঘোষণার পূর্বের থেকে সম্ভাব্য প্রার্থীরা করোনা পরিস্থিতিতে এলাকায় অসহায় মানুষের কাছে খাদ্যসামগ্রী পৌঁছে দেওয়ার জন্য প্রতিযোগিতামূলক উৎসাহ উদ্দীপনা এবং ইউনিয়নের বিভিন্ন এলাকায় উঠান বৈঠকসহ বিভিন্নভাবে প্রচারণা চালিয়ে যাচ্ছিলেন সম্ভাব্য প্রার্থীরা । পিছিয়ে নেই সম্ভাব্য মেম্বার ও মহিলা মেম্বার প্রার্থীরাও তারাও বিভিন্ন এলাকায় ঘুরে ঘুরে প্রচারণা চালিয়ে আসছিলো।

সম্ভাব্য ইউপি চেয়ারম্যান প্রার্থী মুহাম্মদ আলম কোম্পানী বলেন, নৌকার প্রতীক নিয়ে নির্বাচনে অংশগ্রহন করে ভোটারেরা বিপুল ভোটে বিজয় করে এলাকা উন্নয়ন করার দায়িত্ব দিয়েছিলেন সাধারণ জনগণ। জনগণের সেবা করার সুযোগ পেয়ে আমার সাধ্যমতে চেষ্টা করে অনেক উন্নয়ন কাজ করেছি। আগামীতে ভোটারদের ভোটে নির্বাচিত হলে বাইশারী ইউনিয়নে আরও অধিকতর উন্নয়ন করে রোল মডেল করবো।

ইউনিয়ন যুবদল নেতা মুহাম্মদ জসিম উদ্দীন ও দৌছড়ির বিএনপি’র সভাপতি মুহাম্মদ আব্দুর রশিদ জানান, এখনো জেলা থেকে দলীয় ভাবে কোন সিদ্ধান্ত আসেনি। আমরা দলীয় সিদ্ধান্তের অপেক্ষায় আছি। তবে দলীয় ভাবে নির্বাচন করতে প্রস্তুত আছেন এই দুই নেতা।

দৌছড়ি ইউনিয়নের বর্তমান চেয়ারম্যান মুহাম্মদ হাবীব উল্লাহ বলেন, জননেত্রী শেখ হাসিনা যদি আমাকে ফের নৌকা প্রতীক দিলে এবং জনগন ফের চেয়ারম্যান নির্বাচিত করলে আমি এলাকার উন্নয়ন করে এগিয়ে যেতে চাই।

আওয়ামীলীগ দপ্তর সম্পাদক শামীম ইকবাল চৌধুরী জানান, নির্বাচন কমিশন ২য় ধাপের সারাদেশে ৮৪৮টি ইউনিয়ন পরিষদ নির্বাচনের তফসিল ঘোষণা করেছেন। তৎমধ্যে নাইক্ষ্যংছড়ির ৫টি ইউনিয়নের মধ্যে দুইটি ইউনিয়ন পরিষদের নির্বাচনের মেয়াদকাল উর্ত্তীণ হওয়াতে নির্বাচন কমিশন এই ঘোষিত ২য় ধাপে আগামী ১১ নভেম্বর বাইশারী ও দৌছড়ি ইউনিয়নে নির্বাচন করার ঘোষণা দিয়েছেন। এরইমধ্যে কেন্দ্রীয় আওয়ামীলীগ কার্যালয় থেকে আগামী ২ অক্টোবর থেকে ৬ অক্টোবরের মধ্যে আগ্রহী প্রার্থীদের দলীয় আবেদপত্র সংগ্রহ ও জমা প্রদান করার জন্য বলা হয়েছে।

গত ২ অক্টোবর শনিবার জেলা আওয়ামীলীগের সভাপতি ক্যশৈহ্লা নির্বাহী কমিটির সদস্যদের উপস্থিতিতে সম্ভাব্য ইউপি প্রার্থীদের ৩ জন করে তালিকা তৈরি করে কেন্দ্রীয় আওয়ামীলীগ ধানমন্ডি কার্যালয়ে পাঠানোর জন্য এক জরুরী বৈঠকের আয়োজন করা হয়। এতে সম্ভাব্য চেয়ারম্যান প্রার্থী হিসেবে বায়োডাটা জমা দিয়েছেন যথাক্রমে,বর্তমান চেয়ারম্যান মুহাম্মদ আলম কোম্পানী,ইউনিয়ন আওয়ামিলীগ সভাপতি মু,জাহাঙ্গীর আলম বাহাদুর এবং দৌছড়ি ইউনিয়ন বর্তমান চেয়ারম্যান মু,হাবীব উল্লাহ, উপজেলা আওয়ামীলীগ সাধারণ সম্পাদক মু,ইমরান, আওয়ামীলীগ নেতা নেছার আহাম্মদ ও উপজেলা আওয়ামীলীগ নেতা মুহাম্মদ আলম।

উল্লেখ্য, ৩০ সেপ্টেম্বর (বৃহস্পতিবার) কেন্দ্রীয় আওয়ামী লীগের দপ্তর সম্পাদক ব্যারিষ্টার বিপ্লব বড়ুয়ার স্বাক্ষরিত এক প্রেস বিজ্ঞপ্তির মাধ্যমে জানা যায়, বাংলাদেশ নির্বাচন কমিশন ঘোষিত বিভিন্ন পর্যায়ে নির্বাচনে বাংলাদেশ আওয়ামীলীগ এর দলীয় মনোনয়ন পেতে আগ্রহীদের জন্য ২ অক্টোবর শনিবার থেকে ৬ অক্টোবর বৃহস্পতিবার সকাল ১১টা থেকে বিকেল ৫টা পর্যন্ত মনোনয়ন আবেদনপত্র সংগ্রহ ও জমা প্রদানের তারিখ করা হয়েছে। অতএব, দলীয় আগ্রহী প্রার্থীদেকে বাংলাদেশ আওয়ামী লীগের সভাপতি জননেত্রী শেখ হাসিনার ধানমন্ডি বাড়ী-নং ৫১/এ সড়ক নং- ৩/এ রাজনৈতিক কার্যালয় থেকে বিকাল ৫টার মধ্যে আবেদনপত্র সংগ্রহ ও জমা দেওয়া জন্য বলা হয়েছে।

আরও পড়ুন
আপনার মন্তব্য লিখুন

আপনার ইমেইল ঠিকানা প্রকাশিত হবে না।